খেলোয়াড়দের পক্ষে কলকাঠি নাড়ছেন স্মিথই!

0

বেশ কয়েকদিন ধরে টালমাটাল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট অঙ্গন। বোর্ডের সাথে খেলোয়াড়দের দ্বন্দ্বে ঘোর অনিশ্চয়তায় পড়ে গেছে দেশটির ক্রিকেট। এমন অবস্থায় আসন্ন বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ-ভারত এবং ঐতিহাসিক অ্যাশেজ সিরিজও মাঠে গড়াবে কি না এ নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়।

বোর্ডের পক্ষ থেকে খেলোয়াড়দের সাথে বেশ কয়েকবার সমঝোতার চেষ্টা করা হলেও বেঁকে বসেছেন খেলোয়াড়েরা। একের পর এক নতুন শর্ত যুক্ত করে বাড়িয়ে চলেছেন তাদের দাবিদাওয়া। অথচ চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া এবং তা নতুন করে নবায়ন না করায় সব খেলোয়াড়ই এখন বেকারত্বে সময় কাটাচ্ছেন!

Also Read - হেইডেনকে আঘাত করতে চাইতেন শোয়েব আখতার!

জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটকে ঘোর অমাবস্যার দিকে ঠেলে দেওয়া খেলোয়াড়দের এমন সিদ্ধান্তের পেছনে মূলত কাজ করছে অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের চিন্তাধারাই। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের নাম নিয়ে রীতিমতো দাবার বোর্ডে সব চাল চালছেন তিনিই। তার কথা মেনেই সব খেলোয়াড় অবস্থান করছেন বোর্ডের পক্ষে, এমনকি সম্মত হচ্ছেন না সমঝোতার পথে আগানোরও।

স্মিথের ব্যাপারে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়ে সম্প্রতি একটি খবর প্রকাশ করে প্রভাবশালী পত্রিকা দ্যা টেলিগ্রাফ।

টেলিগ্রাফের খবরটিতে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিইও-র উদ্বৃতি দিয়ে সেখানে লেখা হয়, ‘স্টিভ নিজেকে একটি কঠিন অবস্থায় পেতে পারে। মার্ক টেলরের মতো খেলোয়াড়, যে কিনা এমন আলোচনার প্রধান ছিল- ১৯৯৭ সালে তাড়িত হয়। এটি প্রমাণ করে তখন কত কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং সময় পার করতে হয়েছে। স্টিভ স্মিথ, তার মূল্য এবং আদর্শের প্রতি আমার সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা আছে। সে ক্রিকেটকে অনেক ভালোবাসে এবং আমি জানি অস্ট্রেলিয়ার অন্য সবার মতো সেও চায় দ্রুত অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটে ফিরুক ও সে ঢাকায় দলকে নেতৃত্ব দিক।’

  •  সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম