চন্দ্রমোহনের অপেক্ষায় বিসিবি

Share Button
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান ফিজিও তিতান চন্দ্রমোহনের অপেক্ষায় রীতিমতো ক্ষণ গুনছে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা- বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

গত মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরের সময় দলের নতুন ফিজিও হিসেবে চন্দ্রমোহনকে নিয়োগ দেয় বিসিবি। নিয়োগের সময় তাকে সাময়িকভাবে দায়িত্ব দেওয়া হলেও পরবর্তীতে তাকে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি, এজন্য প্রস্তাবও পাঠানো হয় ভারতীয় বাবা ও শ্রীলঙ্কান মায়ের সন্তান চন্দ্রমোহনকে। এতে চন্দ্রমোহন সম্মতি জানালেও আনুষ্ঠানিক চুক্তি এখনও হয়নি।

ক্রিকেটারদের চলমান ফিটনেস ক্যাম্পে ফিজিওর থাকা বাধ্যতামূলক ছিল বলে মনে করছেন অনেকে। একইসাথে তার অনুপস্থিতি অবাক করছে ক্রিকেট-সংশ্লিষ্টদের। মা-বাবা দুই ভিন্ন দেশের নাগরিক হলেও চন্দ্রমোহন থাকেন না এই দুই দেশের কোথাও-ই, তার স্থায়ী নিবাস অস্ট্রেলিয়ায়। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শেষে ক্রিকেটাররা দেশে ফিরলেও সেই যাত্রায় আর দেশে ফেরেননি তিনি। এখনও তাই তার অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে ক্রিকেটারদেরকে।

Also Read - বিপিএলের নিয়ম ভেঙেছে খুলনা টাইটানস!

তবে ফিজিওর না ফেরার পেছনে কারণ হিসেবে ছোটখাটো দুর্ঘটনাকে উল্লেখ করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। সম্প্রতি দেশের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম বিডিনিউজকে তিনি বলেন, ফিজিও নিজে অফিসিয়ালি যদিও আমাদের কিছু জানায়নি, তবে আমরা জানতে পেরেছি সে দুর্ঘটনায় পড়েছে। হাসপাতালে আছে।

ফিটনেস ক্যাম্পে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ছোটখাটো ইনজুরির ও রোগশোকের শিকার হয়েছেন, তাদের মধ্যে আছেন দলের প্রধান দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মর্তুজাও। আপাতত তাদের জন্য বিসিবির ফিজিওরাই কাজ করছেন বলে জানান নিজামউদ্দিন চৌধুরী, বিসিবির ফিজিও-ডাক্তাররা আছে, জাতীয় দলের সঙ্গে কাজ করেছে, এমন ফিজিও আছে। ওরাই আপাতত ছেলেদের দেখভাল করছে। চাইলেই আসলে সবসময় ভালো মানের ফিজিও পাওয়া যায় না। আমরা তাই ওর জন্যই অপেক্ষা করছি। আশা করছি, সুস্থ হলে দ্রুতই সে যোগাযোগ করবে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম