বেভানের বল ধরা ছিল সবচেয়ে কঠিন : গিলক্রিস্ট

0


দীর্ঘদিন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে উইকেটের পেছনে গ্লাভস হাতে দায়িত্ব সামলেছেন অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। উইকেটের পেছনে থেকে গ্লাভসবন্দী করেছেন গতি তারকা ব্রেট লির বল। উইকেট কিপিং করেছেন স্পিন জাদুকর শেন ওয়ার্নের বলে। কিপিং করেছেন গেলন ম্যাকগ্রার বলে। তবে এদের কেউ নন, পার্ট টাইম বাঁহাতি স্পিনার মাইকেল বেভানের বল ধরা সবচেয়ে কষ্টকর ছিল গিলক্রিস্টের জন্য।

ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে মাইকেল বেভানের বিশেষণ হলো ‘ফিনিশার’। ব্যাট হাতে যেভাবে তিনি ম্যাচ শেষ করে মাঠ ছাড়তেন তা ছিল অতুলনীয়। হঠাৎ হঠাৎ বলও হাতে তুলে নিতেন বেভান। বাঁহাতি এ অকেশনাল স্পিনার ২৩২ আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে ৩৬ উইকেট এবং ১৮ টেস্টে ২৯ উইকেট শিকার করেন।

সম্প্রতি ক্রিকেট ডটকম ডট এইউকে দেওয়া এক সাক্ষৎকারে গিলক্রিস্ট বলেন, “বেভান তার বোলিংয়ের জন্য পরিচিত ছিল না। অবশ্যই ব্যাটিংয়ে সে দারুণ দক্ষ কিন্তু মাঝে মাঝে সে উইকেট নিয়েও দলে অবদান রাখতো।”

Also Read - চলবে না শুধু 'সুরমা সিক্সার্স'

“এ বাঁহাতি স্পিনারের অ্যাকশনটা বেশ দ্রুত ছিল। তার হাতের নড়াচড়া ধরে উঠতে পারা কঠিন ছিল,” বলেন গিলি। বেভানের হাতের নিয়ন্ত্রণ ভালো ছিল না বলে তা আরো চ্যালেঞ্জিং ছিল বলে মনে করেন তিনি।

বেভানের সাথে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৭৫ টি ম্যাচ খেলেছেন গিলক্রিস্ট। এর মধ্যে ৪৫ টি ম্যাচে বেভানের বলে উইকেট কিপিংয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন গিলক্রিস্ট।

বল হাতে বেভানকে খুব কম দেখা গেলেও তার ঝুলিতে রয়েছে দারুণ এক রেকর্ড। ১৯৯৭ সালে টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১১৩ রান দিয়ে ১০ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি। কোনো টেস্টে এটিই এখন পর্যন্ত  কোনো অস্ট্রেলিয়ান বাঁহাতি স্পিনারের জন্য সেরা বোলিং ফিগার।

আজমল তানজীম সাকির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম ডট কম