অস্ট্রেলিয়া সিরিজঃ শঙ্কার নাম বৃষ্টি

0

অনেক জলঘোলার পর অবশেষে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দল। যদিও এই সফরটি হওয়ার কথা ছিল প্রায় দুই বছর আগে। নিরাপত্তা-ব্যবস্থাকে কারণ হিসেবে দেখিয়ে দুই দফা সিরিজ পেছানোর পর বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে সৃষ্ট টালমাটাল অবস্থা। যদিও সবকিছু সমাধান করে বর্তমানে পরিস্থিতি আছে স্বাভাবিক, সিরিজও মাঠে গড়াচ্ছে যথা সময়েই।

তবে সিরিজ শুরুর আগে একটি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে দুশ্চিন্তার কারণ, আর সেটি হল বৃষ্টি। ক্রিকেট পাঠকরা ‘বেরসিক বৃষ্টি’ কথাটা বেশ কয়েকবার শুনেছেন। আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজে এই শব্দ-দ্বয়ের সাথে সখ্যতাও করতে হতে পারে ক্রিকেট-সমর্থকদের!

Also Read - মুশফিকের চোখে ব্যাটসম্যানদের জন্য তিনটি 'চ্যালেঞ্জ'

বাংলা দিনপঞ্জিকা বলছে, বর্ষা পেরিয়ে প্রকৃতিতে এখন বিরাজ করছে শারদ ঋতু শরৎ। তবে প্রকৃতিকে দেখে আদৌ তা বোঝার উপায় নেই। শ্রাবণ মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে ভারী বর্ষণ লেগেই আছে দেশব্যাপী। বন্যা ও জলাবদ্ধতা হয়ে দাঁড়িয়েছে জাতীয় সমস্যা। এই সমস্যায় পড়েছে অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু ফতুল্লাও। শঙ্কার বিষয়, চলমান অতিবৃষ্টির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আসন্ন বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দ্বিপাক্ষিক দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের মতে, ঢাকা শহরে চলমান বৃষ্টিপাত ১৭ আগস্টের দিকে কমে গেলেও এর পাঁচ-ছয়দিন পর আবারও আবির্ভূত হয়ে চলবে মাসের শেষ পর্যন্ত। এই হিসেবে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টেস্টেও হানা দিবে বৃষ্টি। এ বিষয়ে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বিভাগের কর্মকর্তা আবুল কালাম মল্লিক বলেন, ‘বর্তমানে যে বৃষ্টিপাত হচ্ছে তা ১৭ আগস্ট কমে যাবার সম্ভাবনা আছে।  তারপর ২২ আগস্ট থেকে হয়তো আবার হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি শুরু হতে পারে।  সেদিক থেকে বলা যেতে পারে ২৭ তারিখ থেকে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ম্যাচে বৃষ্টি ও রোদ দুটোই থাকবে।  অর্থাৎ বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।  মাসের শেষে প্রতিদিনই কিছুটা হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হবে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম