SCORE

Breaking News

‘ঘরের মাটিতে অপরাজেয় দল বাংলাদেশ’

Share Button

"যেখানেই খেলি, রোমাঞ্চ থাকে"

নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশ ‘অপরাজেয় দল’ বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্বসেরা বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। অস্ট্রেলিয়ার সিরিজের প্রাক্বালে বিশ্বখ্যাত দৈনিক দ্যা গার্ডিয়ানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেন সাকিব।

এবারের আগে বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছিল দীর্ঘ ১১ বছর আগে। এই লম্বা সময়ে বেশ বদলে গেছে বাংলাদেশের ক্রিকেট, বদলেছে ক্রিকেটারদের মানসিকতাও। একটা সময় বাংলাদেশ কোনোমতে ড্রয়ের আশা নিয়ে মাঠে নামলেও এখন টাইগারদের লক্ষ্য থাকে জয় ছিনিয়ে নেওয়া। সাকিব জানালেন সেই কথাই, ‘আগে বড় দলের বিপক্ষে আমরা অন্তত ড্র করতে চাইতাম। সেটি না হলে খুব বড়জোর ম্যাচ ৫ দিনে নিতে চাইতাম।’

Also Read - সুযোগ পেলে ভালো করতে চান অ্যাগার

বর্তমানে দল যে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামে সেই কথা জানিয়ে সাকিব বলেন, ‘কিন্তু এ মুহূর্তে আমরা জানি আমরা কি করতে পারি। আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে। আমরা ম্যাচ জিততে পারি এই আত্মবিশ্বাসটা দৃঢ়।’

টেস্ট অলরাউন্ডার র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন সাকিব

নিজেদের দেশের মাটিতে অপরাজেয় দল আখ্যা দিয়ে সাকিব জানান, প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন, ম্যাচ জেতার সক্ষমতা বাংলাদেশের রয়েছে। বিশেষ করে নিজেদের মাটিতে টাইগারদের অপ্রতিরোধ্য আচরণ যেকোনো প্রতিপক্ষকেই ঘায়েল করতে সক্ষম। সাকিব বলেন, ‘এখন আমরা অনুভব করতে শিখেছি দেশের মাটিতে আমরা অপরাজেয় দল। কার বিপক্ষে খেলছি সেটা কোনো ব্যাপার না। আমাদের দলটি বেশ ভালো একটি দল, ম্যাচ জেতার মতো একটি দল

২০০৬ সালে সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ টেস্ট ফরম্যাটের লড়াইয়ে দুই দলের হয়ে যারা মাঠে নেমেছিলেন, তাদের কেউই এখন এই ফরম্যাটে বর্তমান নেই। ফলে সম্পূর্ণ নতুন দুটি দল নিয়ে মাঠে নামবে দুই দলই, যে দলে এমন কেউই নেই যারা একই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে আগেও টেস্ট খেলেছেন। এই ব্যাপারটিতে ভীষণ রোমাঞ্চিত সাকিব। তিনি বলেন, ‘অজিদের বিপক্ষে টেস্ট খেলার মতো অভিজ্ঞতাসম্পন্ন আমাদের বর্তমান দলে কোনো ক্রিকেটার নেই। ওদের বিপক্ষে খেলার জন্য আমরা রোমাঞ্চ নিয়ে অপেক্ষা করছি।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

ভোরে শুরু হচ্ছে ‘অ্যাশেজ সিরিজ’

মুশফিকের চোখে রিয়াদই সাকিবের বিকল্প

‘এই সময়টায় ফেইসবুকে কম যাওয়ার চেষ্টা করি’

মুশফিককে নিয়ে বোর্ড সভাপতির উল্টো দাবি!

বোলিংয়েই সব মনোযোগ তাইজুলের