চট্টগ্রাম টেস্টঃ সমীকরণের মারপ্যাঁচে র‍্যাংকিং

0

অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরুর আগে বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য ছিল র‍্যাংকিংয়ের দিকে। ঢাকা টেস্ট জিতলে এগোনোর সুযোগ থাকবে র‍্যাংকিংয়ে- এমন সমীকরণ সামনে নিয়েই এগচ্ছিল টাইগার বাহিনী। তবে বাংলাদেশ শেষমেশ ঢাকা টেস্ট জিতলেও র‍্যাংকিংয়ে এগোতে পারেনি, মাঝপথে এসে বাঁধ সেধেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ক্যারিবীয়রা ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বসায় এখনও তাদের রেটিং পয়েন্ট বেশি বাংলাদেশের চেয়ে।

সাকিবের চেয়ে দ্রুততম তাইজুল

তবে ঢাকা টেস্টে র‍্যাংকিংয়ে না এগোলেও ৯ম স্থানে থাকা বাংলাদেশ ৮ম স্থানে উঠে আসার সুযোগ আবারও পাচ্ছে চট্টগ্রাম টেস্টে। তবে সেক্ষেত্রেও মুশফিকুর রহিমের দলকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার চলমান সিরিজের দিকে। তিন ম্যাচের ঐ সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ইংল্যান্ড অবশ্যই হারাতে হবে, সেই সাথে বাংলাদেশ জিততে হবে চট্টগ্রাম টেস্টেও। তবেই র‍্যাংকিংয়ে উন্নতির সুযোগ আসবে টাইগারদের সামনে।

Also Read - অস্ট্রেলিয়ার সাংবাদিকদের জন্য সাকিবের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

বর্তমান আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট ৬৯, টাইগারদের অবস্থান টেবিলের নবম স্থানে। অষ্টম স্থানে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে আছে ৬ পয়েন্ট।

চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক চট্টগ্রাম টেস্টে কেমন ফল হলে, কী পার্থক্য আসবে র‍্যাংকিংয়ের টেবিলে-

*চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশ হেরে গেলে, অর্থাৎ সিরিজ ১-১ ব্যবধানে ড্র হলে এবং ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ তৃতীয় টেস্ট ড্র হলে, অর্থাৎ ঐ সিরিজও ১-১ ব্যবধানে ড্র হলে- বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে ৭৪ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের পয়েন্ট হবে ৭৯।

*বাংলাদেশ চট্টগ্রাম টেস্ট হারলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইংল্যান্ডের কাছে তাদের সিরিজের শেষ ম্যাচ হারলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পয়েন্ট থাকবে ৭৫, তখনও তালিকার অষ্টম স্থানেই থাকবে ক্যারিবীয়রা এবং নবম স্থানে বাংলাদেশ।

*বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ উভয় সিরিজের শেষ ম্যাচ ড্র হলে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই দলেরই পয়েন্ট হবে ৭৯। তখন দশমিক ব্যবধানে এগিয়ে থেকে অষ্টম স্থানে উঠে আসবে বাংলাদেশ।

*বাংলাদেশ ১-০ ব্যবধা সিরিজ জিতলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১-২ ব্যবধানে হারলে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ নেমে যাবে তালিকার নয়ে এবং বাংলাদেশ ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে উঠে আসবে আটে।

*বাংলাদেশ ১-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলে ৮২ পয়েন্ট নিয়ে ক্যারিবীয়রাই থাকবে তালিকার আটে।

*বাংলাদেশ ২-০ ব্যবধানে জিতলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১-২ ব্যবধানে হারলে, ৮১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার আটে উঠে আসবে বাংলাদেশ।

*বাংলাদেশ ২-০ ব্যবধানে জিতলে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১-১ এ ড্র করলে, বাংলাদেশ তিন পয়েন্ট এগিয়ে থেকে আটে উঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নামিয়ে দিবে নয়-এ।

*বাংলাদেশ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই দলই সামনের টেস্ট ম্যাচ জিতলে এক পয়েন্তে এগিয়ে থেকে অষ্টম স্থানেই থাকবে ক্যারিবীয়রা।

অর্থাৎ একটি জিনিস পরিষ্কার, এই সিরিজেই র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি ঘটাতে হলে বাংলাদেশের সামনে চট্টগ্রাম টেস্টে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। সাকিব-তামিম-মুশফিকরা আবারও অজি-বধ করতে পারেন কি না, সেটাই এখন অপেক্ষার।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম