SCORE

Trending Now

তাইজুল-মিরাজের ব্যাপারে আশাবাদী মুশফিক

Share Button

সদ্য সমাপ্ত ঢাকা টেস্টে ছিল স্পিনারদের জয়জয়কার। বাংলাদেশের ধারালো স্পিন বোলিংয়ের শিকার হয়ে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের প্রথম টেস্টে পরাজয় বরণ করে নিয়েছে মাত্র চার দিনেই। অস্ট্রেলিয়ার পতন ঘটা ২০টি উইকেটের ১৯টিই শিকার করেছেন স্পিনাররা, অন্যটি রানআউট। অর্থাৎ, পেসাররা (মুস্তাফিজ ও শফিউল) শিকার করতে পারেননি একটি উইকেটও! অবশ্য উইকেট লাভের সুযোগও কম পেয়েছেন এই দুজন। পুরো ম্যাচে সাকুল্যে বোলিংই যে করেছেন ১৫ ওভার।

মুশফিক

এই টেস্টে বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণভাগের উপর তৈরি হয়েছে নতুন আস্থা। আর ম্যাচে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া সাকিবকে দারুণভাবে সহায়তা করা তাইজুল ইসলাম মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে স্বভাবতই বেশ আশাবাদী মুশফিকুর রহিম।

Also Read - ক্যারিয়ার সেরা র‍্যাংকিংয়ে সাকিব-তামিম

সাকিবের চাপ কমানোর জন্য তাইজুল ও মিরাজের ভালো করা প্রয়োজন উল্লেখ করে মুশফিক জানান তাদের উপর তার আস্থার কথা, ‘সব টেস্টে যে সাকিব একাই ভালো করবে তা নয়। অন্য দুই স্পিনারও (মিরাজ-তাইজুল) যদি আরও ভালো বোলিং করে তাহলে সাকিবের ওপর চাপ আরও কম পড়বে। আমার মনে হয়, এভাবে টিম ওয়ার্ক আরও বাড়বে। যদিও তারা (মিরাজ-তাইজুল) দুজন ভালো বোলিং করেছে কিন্তু তাদের কাছ থেকে আরও বেশি চাই। কারণ, এমন উইকেট সব সময় হবে না। এমন উইকেটে সবার নিজের দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করা উচিত। ওরা ওদেরটা করেছে কিন্তু আমার মনে হয় ওরা আরও ভালো করতে পারবে।’

মিরাজ ও তাইজুল দুজনই আগের চেয়ে ভালো বোলিং করেছেন বলে মনে করছেন মুশফিক। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আগে থেকে ওরা অবশ্যই একটু ভালো করেছে। তবে আমি মনে করি, এমন উইকেটে ওদের এর চেয়ে আরও অনেক ভালো করার সামর্থ্য আছে। ওদের (অস্ট্রেলিয়ার) ২৪৪ রানের প্রায় অর্ধেক রানই করেছে ডেভিড ওয়ার্নার। আমরা ওই জায়গায় যদি আরও ভালো বোলিং করতাম তাহলে ও আরও অনেক আগেই আউট হতে পারত। আমার মনে হয় অবশ্যই ওরা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছে কিন্তু আরও ভালো করার সামর্থ্য আছে।’

তাইজুল-মিরাজের ব্যাপারে আশাবাদী মুশফিক

পেসারদের ম্রিয়মাণ ম্যাচে স্পিনারদের ঝলক দেখে অনেকেই মনে করছেন, স্পিন নির্ভর দলে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। তবে এমনটি মানতে নারাজ মুশফিক। তার মতে, স্পিন-বান্ধব পরিবেশ ছিল বলেই স্পিনে ভালো করেছে বাংলাদেশ। তবে স্পিন যে নিজেদের শক্তি- স্বীকার করলেন সেই কথা।

মুশফিক বলেন, ‘স্পিন নির্ভর নয়, এটা নির্ভর করে আপনি কার সঙ্গে কোন কন্ডিশনে খেলছেন সেটার ওপর। উপমহাদেশে ঘাসের উইকেট বানিয়ে কোনো দলের বিপক্ষে তিন-চারজন পেসার নিয়ে খেলা, এটা আমাদের শক্তি নয়। আমাদের কাজ হবে নিজেদের শক্তি নিয়ে খেলা। আবার কোয়ালিটি স্পিনার ছাড়া স্পিনিং উইকেট বানিয়ে খেলব, সেটাও কিন্তু ঠিক নয়।’

বাংলাদেশ সেরা কম্বিনেশন নিয়ে মাঠে নামে জানিয়ে মুশফিক বলেন, আমাদের দলের যে শক্তি আছে, সেটা অনুসারে আমরা সেরা কম্বিনেশন করার চেষ্টা করি।’

স্পিনে বাংলাদেশের শক্তিমত্তা বাড়লেও টাইগারদের পেস আক্রমণ এখনও কিছুটা নাজুক। এর কারণ হিসেবে মুশফিক মনে করছেন অভিজ্ঞ পেসারের অভাব। পেসাররা ভালো করলে স্পিনারদের কাজও সহজ হয়ে যায় জানিয়ে মুশফিক বলেন, ‘পেস বোলিংয়ে অনেক কাজ করা বাকি। আমার মনে আছে জিম্বাবুয়েতে রবিউল এবং জিয়া ভাই যে পাঁচ উইকেট (জিয়া ওয়ানডেতে) পেয়েছিল, তারপর মনে হয় আমাদের আর কোনো পেসার পাঁচ উইকেট পায়নি। যদিও আমরা অনেক ম্যাচ খেলেছি। এখানে (পেস বোলিং) আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে। কারণ স্পিনাররা সব সময় করে দেবে না। আমাদের কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার কামিন্সের মতো অভিজ্ঞ পেসার নেই। আমরা আমাদের কন্ডিশনে যেটা করলে ভালো হয় সেটাই করেছি। পেসাররা ভালো করলে স্পিনারদের কাজ সহজ হয়ে যায়। ভবিষ্যতে আমরা চেষ্টা করব উন্নতি করার।’

আর দুদিন পরই মুসলিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব দুটির একটি- ঈদুল আযহা। অজিদের বিপক্ষে দারুণ একটি জয় দিয়ে সমর্থকদের ঈদের উপহার এনে দিয়েছেন মুশফিক। যদিও মুশফিকরা এবার ঈদ পালন করবেন পরিবার ছাড়াই। ৪ তারিখ থেকে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের জন্য শীঘ্রই দল পাড়ি জমাবে চট্টগ্রামে। মুশফিক জানালেন, ঈদের দিন তার বাবা-মাকে মিস করবেন তিনি, ‘ঈদে বাবা-মাকে মিস করব। আমি না শুধু, খেলার কারণে সবাই মিস করবে। এই ত্যাগ করে যদি দেশকে কিছু দিতে পারি, সেটা অনেক বড় ব্যাপার। চট্টগ্রামের উইকেট দেখব। তারপর কম্বিনেশনটাও বিবেচনা করব। সেটা আমাদের মাথায় আছে। আমাদের শক্তি অনুযায়ী আমাদের উইকেট বানানোর চেষ্টা করব।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

ভোরে শুরু হচ্ছে ‘অ্যাশেজ সিরিজ’

মুশফিকের চোখে রিয়াদই সাকিবের বিকল্প

‘এই সময়টায় ফেইসবুকে কম যাওয়ার চেষ্টা করি’

মুশফিককে নিয়ে বোর্ড সভাপতির উল্টো দাবি!

বোলিংয়েই সব মনোযোগ তাইজুলের