SCORE

সর্বশেষ

দেশের বাইরে নেওয়া হতে পারে মোসাদ্দেককে

প্রথম টেস্টের জন্য ঘোষিত ১৪ সদস্যের স্কোয়াডে ডাক পেয়েছিলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। কিন্তু চোখের ইনফেকশনের কারণে বাদ পড়তে হয় দল ঘোষণার পরের দিনই। এখনো বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের পর্যবেক্ষণে আছেন মোসাদ্দেক। উন্নতি না হলে পাঠানো হতে পারে দেশের বাইরেও।

বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, “বিদেশে পাঠানো নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। আরো কয়েকটা দিন দেখার জন্য বলা হয়েছে। যে দেশেই নেন না কেন, সময় লাগবেই। তিন সপ্তাহ হয়ে গিয়েছে। আমরা আরো কয়েকটা দিন অপেক্ষা করবো। যদি তেমন উন্নতি না হয় তাহলে আমরা তাকে বিদেশে পাঠানো নিয়ে ভাববো। সেক্ষেত্রে থাইল্যান্ডের নাম প্রস্তাব করা হবে।”

বাম চোখের কর্নিয়াতে ইনফেকশন হয়েছে মোসাদ্দেকের। চোখের অসুস্থতার কারণে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ দলের সাত দিনের ক্যাম্পেও যোগদান করেননি তিনি। ঢাকায় দলের সাথে অনুশীলন করলে রৌদ্রে সমস্যা হচ্ছিল মোসাদ্দেকের। জ্বালাপোড়া অনুভব করছিলেন চোখে। প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে থাকলেও ছিটকে যেতে হয় তাকে। তার পরিবর্তে স্কোয়াডে সুযোগ পান মুমিনুল হক।

Also Read - অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন ডি ভিলিয়ার্স

বিসিবির চিকিৎসক জানিয়েছেন এ ধরণের সমস্যার ক্ষেত্রে একটু বেশি সময় লাগতে পারে। কখনো কখনো পুরোপুরি সুস্থ হতে সময় লেগে যায় প্রায় ছয় মাসের মতো। মোসাদ্দেকের এমন দূর্ভাগ্য হলো অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট তো বটেই, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও খেলতে পারবেন না তিনি।

এখন পর্যন্ত একটি টেস্ট খেলেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এ বছর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে অভিষেক হয় তার। বাংলাদেশের শততম টেস্ট ছিল তার অভিষেক টেস্ট। কলম্বোতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৭৫ রানের এক নান্দনিক ইনিংস খেলে দলের জয়ে অবদান রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু তারপরের টেস্টেই বাদ পড়তে হলো তাকে।

ছয় মাস লেগে গেলে দূর্ভাগ্যটা যেমন মোসাদ্দেকের হবে তেমনি হবে বাংলাদেশেরও। এ অলরাউন্ডার যত দ্রুত সুস্থ হয়ে ফিরবেন ততই মঙ্গল বাংলাদেশের।

Related Articles

সমান তালে লড়ছে আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ

বাদ পড়লেন কায়েস-তাসকিন, ফিরলেন মোসাদ্দেক

‘পারফরম্যান্স ভালো ছিল না হয়ত, তাই বাদ পড়ছি’

বিসিবির বেতনভুক্ত ক্রিকেটার হওয়ার প্রভাব কতটা?

তাসকিন-সৌম্যদের জন্য মাশরাফির প্যাশন টোটকা