নাফিসের চোখে স্মিথ-ওয়ার্নাররা যেমন…

0

শাহরিয়ার নাফিস, ঘরোয়া ক্রিকেটের প্রথম সারির ব্যাটসম্যান। একসময় দাপটের সাথে খেলেছেন জাতীয় দলেও। ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবেও রয়েছে তার খ্যাতি। সম্প্রতি জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোতে নাফিস আলোচনা করেছেন আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজের সফরকারী দলের খেলোয়াড়দের নিয়েও। তার কলামে উঠে এসেছে দলটির অন্যতম প্রধান দুই শক্তি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের নামও।

স্মিথ প্রসঙ্গে নাফিস বলেন, ‘লেগ স্পিনার হিসেবে দলে সুযোগ পাওয়া স্মিথ সময়ের সঙ্গে বদলেছেন নিজেকে সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান হতে পারেন বাংলাদেশের সামনে সবচেয়ে বড় দেয়াল।’

Also Read - বাশারের স্মৃতি রোমন্থন

এশিয়ায় স্মিথের পারফরমেন্স তার স্বদেশী অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের চেয়ে ভালো। এটি বাংলাদেশের জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে বলে মনে করছেন নাফিস, ‘দেশেদেশের বাইরে পেস কিংবা স্পিনযেকোনো বোলিংয়ের বিপক্ষে সমান কথা বলে তাঁর ব্যাট এশিয়ায় অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে তাঁর রেকর্ড সবচেয়ে ভালো দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে তাঁর লড়াকু ইনিংসের উদাহরণ অসংখ্য

 

অধিনায়ক হিসেবে প্রাপ্ত ‘চাপ’কে যে স্মিথ দারুণ কাজে লাগাতে পারেন, সেটিও মনে করিয়ে দেন নাফিস, ”অধিনায়কত্বের চাপে অনেক কিংবদন্তি ব্যাটসম্যানের ভেঙে পড়ার উদাহরণ আছে, স্মিথের কাছে সেটিই উপভোগের দারুণ এক মন্ত্র শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে যে ৩০টা ম্যাচ খেলেছেন তাতে গড় ৫১.৮৩, অধিনায়ক হিসেবে ২৪ টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়া স্মিথের গড় ৭৩.২৭ এবারও সাকিবমোস্তাফিজমিরাজদের ভোগাতে ভালোভাবেই তৈরি হয়ে এসেছেন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক।’

Australia v New Zealand - 2nd Test: Day 1

এদিকে ওয়ার্নার বাংলাদেশের জন্য কত বড় প্রতিপক্ষ হয়ে উঠতে পারেনি সেটি নাফিস বোঝাতে চেয়েছেন পরিসংখ্যান দিয়েই, ‘কোনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা ছাড়াই ডাক পেয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দলে। প্রতিভার বিচ্ছুরণে বাঁহাতি ওপেনার নিজেকে প্রতিষ্ঠ করেছেন দলের অন্যতম ভরসা হিসেবে। এরই মধ্যে ঠাঁই করে নিয়েছেন রেকর্ড বইয়ের অনেক অধ্যায়ে।’

নাফিস আরও উল্লেখ করেম, ‘গত জানুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিডনি টেস্টের প্রথম দিনে লাঞ্চের আগে সেঞ্চুরি করেছেন। টেস্ট ইতিহাসে এই রেকর্ড তাঁর আগে নাম তুলেছেন মাত্র চার ব্যাটসম্যান।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম