SCORE

Breaking News

প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক সিরিজের আশায় মুশফিক

Share Button

IMG_0972

অবশেষে নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত ১৮ আগস্ট বাংলাদেশে এসেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে দ্বন্দ্ব থাকায় সংশয় ছিল বাংলাদেশ সফর নিয়ে। তবে সবকিছু মিটিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় স্মিথ বাহিনীরা।

২০১৫ সালে সিরিজটি হওয়ার কথা থাকলেও হলি আর্টিজন রেস্টুরেন্টে সন্ত্রাসী হামলার কারণে বাংলাদেশে আসতে অসম্মতি জানায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। বহু উপেক্ষিত সিরিজটি অবশেষে মাঠে গড়ালে উত্তেজনার কমতি নেই ক্রিকেট সমর্থক ও ক্রিকেটারদের মধ্যে। অজিদের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক সিরিজের আশা করছেন টেস্ট দলপতি মুশফিকুর রহিম।

Also Read - ম্যাক্সওয়েলের ভয় সাকিব-মুস্তাফিজে

“অবশেষে তারা (অস্ট্রেলিয়া) এসেছে। আমার মনে হয় পুরো দেশের মানুষ এই সিরিজটির জন্য মুখিয়ে ছিল। এখন বাকিটা আল্লাহ্‌র ইচ্ছা। অস্ট্রেলিয়া সবসময় বলে এসেছে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক সিরিজ হবে এবং আমরা সেটার জন্য মুখিয়ে আছি।”

দীর্ঘ ১১ বছর পর অজিদের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে নামছে মুশফিক বাহিনীরা। সেসময়ের অজি দলে পন্টিং, গিলক্রিস্টরা থাকলেও বাংলাদেশে দলে ছিলেন না তেমন তারকা ক্রিকেটার। তবে সময়ের সাথে বদলে গিয়েছে সবকিছু। ওয়ানডে ক্রিকেটের পাশাপাশি রঙ বদলেছে বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেটেরও।

টাইগারদের সাম্প্রতিক ফর্ম ও ঘরের মাঠে সিরিজ হওয়াতে অজিদের বিপক্ষে জমজমাট লড়াইয়ের প্রত্যাশা করতেই পারে সমর্থকরা। তবে স্মিথদের বিপক্ষে জয় অতটা সহজ হবে না মানছেন টেস্ট অধিনায়ক মুশফিক। তবে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়টাকে আরো আত্মবিশ্বাসী করে তুলেছে টাইগারদের। সেটার ধারাই বজায় রাখতে চান মুশফিক।

“খেলা মানে অবশ্যই জয়ের জন্য আর এটা শুধু বলার জন্য না কারণ আপনারা জানেন আমাদের দলে বেশ কিছু স্পেশাল ট্যালেন্ট ক্রিকেটার রয়েছে। দল হিসেবে বিগত কয়েক বছর বেশ ভালো খেলছে বাংলাদেশ দল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠিতে আমরা সিরিজ ‘ড্র’ করেছি। তাই দলের সবাই অনেক আত্মবিশ্বাসী।

তিনি আরো যোগ করেন, “আমরা জানি অস্ট্রেলিয়া অনেক প্রফেশনাল এবং শক্তিশালী একটি দল, তাঁদের বিপক্ষে ভালো করার অনেক কঠিন সেটা আমরা সবাই জানি। আমাদের চেস্টা থাকবে ভাল করার। আমার মনে হয় আমাদের দিনে যদি সেরাটা দিতে পারি তাহলে অবশ্যই ওদের হারানো সম্ভব।”

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের জন্য ঘোষিত ১৪ সদস্যের দলে মুমিনুলের ঠাই না হওয়াতে সমলোচিত হতে হয়েছিল কোচ ও নির্বাচকদের। তবে দলের চার সিনিয়র ক্রিকেটার (তামিম, মুশফিক, সাকিব, মাশরাফি) বিসিবি প্রধানের সঙ্গে মুমিনুলের ব্যাপারে আলাপ করেন।

তবে মোসাদ্দেকের ইনজুরিতে ১৪ সদস্যের দলে জায়গা পেয়ে যান মুমিনুল হক। টেস্ট দলে ফেরাতে খুশি দলপতি মুশফিকও। যদি একাদশে সুযোগ পায়, মুমিনুলকে সেটির সঠিক ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন মুশফিক।

“সবাই দলের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। সবাই চেস্টা করে তাঁদের সেরাটা দেওয়ার। হয়ত আল্লাহ্‌রও ইচ্ছা ছিল ও (মুমিনুল) দলে ফিরুক। আল্লাহ্‌র রহমতে সে এসেছে। সে যদি একাদশে সুযোগ পায় তাহলে সেটা যেন কাজে লাগায়।”

Related Articles

১০ ভারতীয়সহ ৭৭ জুয়ারি ধরলো বিসিবি

রেকর্ড বইয়ে নাম লেখালেন বিজয়

কোচ প্রসঙ্গে আলোচনায় আগ্রহী নন ক্রিকেটাররা

ভারতকে বিদায় করে দিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশ

উবার মোটো’র রাইডে খুশি মাশরাফি