SCORE

Breaking News

ফিক্সিং করেও শ্রীশান্তের মুক্তি!

Share Button

ভারতীয় পেসার শান্তাকুমারন শ্রীশান্তের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির উচ্চ আদালত।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ- আইপিএলের ষষ্ঠ আসরে ম্যাচ ফিক্সিং করার অপরাধে তৎকালীন সময়ের জনপ্রিয় ও ভারত জাতীয় দলের এই বোলারকে সব ধরণের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

Also Read - বাংলাদেশ থেকে সরে যাচ্ছে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব

উপমহাদেশে ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ানোর পরও বোর্ড বা আদালতের সুদৃষ্টির শিকার হয়েছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল শ্রীশান্তের নামও। যদিও উপমহাদেশে প্রচলিত এমন মনোভাব বেশ বিতর্কিত ও সমালোচিত।

শাস্তি থেকে অগ্রিম মুক্তি পাওয়ায় এখন আবারও জাতীয় দলের খেলার স্বপ্ন দেখছেন শ্রীশান্ত। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, সুযোগ পেলে আবারও ভারতের প্রতিনিধিত্ব করতে চান তিনি।

২০১৩ সালে আইপিএলের ষষ্ঠ আসরে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলছিলেন শ্রীশান্ত। সেসময় স্পট ফিক্সিংয়ে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় শ্রীশান্ত এবং দলটির আরও দুই ক্রিকেটার অঙ্কিত চাভান ও অজিত চান্দিলাকে। এরপর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তিন ক্রিকেটারকে আজীবনের জন্য ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। সম্প্রতি শ্রীশান্তের শাস্তি মওকুফ ঘোষণা করে রায় প্রদান করে উচ্চ আদালত। এমন ঘোষণায় অনেকেই মনে করছেন, এর মাধ্যমে ক্রিকেটীয় অপরাধে উৎসাহ প্রদান করা হয়েছে।

ভারতের হয়ে ৮৭টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন শ্রীশান্ত। আবারও ভারতের প্রতিনিধিত্ব করার ইচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ভারতীয় দলে প্রথম ডাক পাওয়ার দিন যেমন ভালো বোধ করছিলাম, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হওয়ায় এর চেয়েও ভালো বোধ করছি। আমার স্বপ্ন ভারতের হয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলা। তবে আমি জানি এটা অসম্ভব এবং আমি যদি বিশ্বকাপে খেলতে পারি তাহলে সেটা হবে মিরাকেল। তবে আমি সবসময়ই বিশ্বাস করেছি, মিরাকেল ঘটেই থাকে।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

মালিঙ্গাকে ছেড়ে দিচ্ছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স!

পঞ্চম বিপিএল: যেন অব্যবস্থাপনার আখড়া

শ্রীশান্তের অদ্ভুত দাবি!

সব ধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানাচ্ছেন নেহরা

ভালো দাম পেতে চুপ অজিরা!