SCORE

Breaking News

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া যেখানে সমান সমান…

Share Button

গত ১০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো পরস্পরের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। আগামী ২৭ আগস্ট মিরপুরে শুরু হবে দুই দলের মধ্যকার টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচটি। আর এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ১১ বছর পর আবারও সাদা পোশাকে মুখোমুখি হবে দল দুটি।

স্টিভ স্মিথের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া দল বর্তমানে টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের ৩য় দল, অন্যদিকে বাংলাদেশের অবস্থান ৯ম। র‍্যাংকিংয়ে পার্থক্য মাত্র দুই ধাপ হলেও পরিসংখ্যানে যোজন যোজন এগিয়ে আসন্ন সিরিজের সফরকারী দল অস্ট্রেলিয়াই। পরস্পরের ৪ বারের মোকাবেলায় ৪ বারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে অজিরা। অন্যদিকে জয় দূরে থাক, এখনও ড্র-ও জোটেনি বাংলাদেশের ভাগ্যে।

Also Read - শীঘ্রই ফিরবেন সুজন

তবে গত এক দশকে বেশ পাল্টে গেছে বাংলাদেশের ক্রিকেট। উন্নতির ধারা অব্যাহত রেখে টাইগাররা এখন হয়ে উঠেছে বিশ্বের অন্যতম ক্রিকেট পরাশক্তি। ব্যাপারটি ভাবাচ্ছে অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকেও। বাংলাদেশের পক্ষে কথা বলছে গত বছর এই ফরম্যাটে টাইগারদের ইংল্যান্ড শ্রীলঙ্কা বধ-ও।

বাংলাদেশ সফরের আগে অস্ট্রেলীয়রা চিন্তামুক্ত থাকতে পারছে না একটি কারণে। আর সেটি হল- উপমহাদেশের মাটিতে গত ১০ বছরে ২২ ম্যাচ খেলে অস্ট্রেলিয়া জয় পেয়েছে মাত্র ২টি ম্যাচে! ২০১৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত সময়সীমায় অজিরা তিনবার এশিয়ান দল দ্বারা টেস্টে হোয়াইটওয়াশও হয়েছে! বাংলাদেশের মাটিতে হোম এডভান্টেজ পাবে টাইগাররাই, ইংলিশ ও লঙ্কা বধের রেশ ধরে রেখে আসন্ন সিরিজে তাই দেখে যেতে পারে অস্ট্রেলিয়ার পরাজয়ও।

তবে একদিক থেকে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া থাকছে সমান্তরালে। যদিও সেক্ষেত্রে কোনো পরিসংখ্যান খাটে না! তবে বাংলাদেশ ও এবং অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট স্কোয়াডের কেউই কোনোদিন একে ওপরের বিপক্ষে টেস্ট খেলেননি। সেই হিসেবে এটিই হতে যাচ্ছে সাকিব-তামিম-মুশফিকদের অজিদের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট, একইভাবে স্মিথ-ওয়ার্নার-খাজাদের টাইগারদের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ। বদলে যাওয়া বাংলাদেশের বিপক্ষে শক্তিমত্তা কমে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার লড়াইটা উপভোগ্য হবে কি না, সেটি বলে দেবে সময়ই!

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

ভোরে শুরু হচ্ছে ‘অ্যাশেজ সিরিজ’

মুশফিকের চোখে রিয়াদই সাকিবের বিকল্প

‘এই সময়টায় ফেইসবুকে কম যাওয়ার চেষ্টা করি’

মুশফিককে নিয়ে বোর্ড সভাপতির উল্টো দাবি!

বোলিংয়েই সব মনোযোগ তাইজুলের