বিশ্ব একাদশের পাকিস্তান সফরকে নিউজিল্যান্ডের ‘না’

0

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের উপর জঙ্গি হামলার পর থেকে ভেন্যু হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত পাকিস্তান। যদিও বর্তমান সময়ে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সূচির তালিকায় পাকিস্তানের নাম দেখার সুযোগ এসেছে। এই সময়ের মধ্যে কয়েকটি দল পাকিস্তান সফরে গেলেও তা নিয়ে রয়েছে যথেষ্ট বিতর্ক ও সমালোচনা।

আইসিসির সর্বশেষ বার্ষিক বোর্ড সভায় সিদ্ধান্ত হয়, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান সফরে যাবে বিশ্ব-একাদশ নামধারী তারকাবহুল একটি দল। সফরে পাকিস্তান জাতীয় দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে দলটি, যে সিরিজের সবগুলো ম্যাচ পাবে আন্তর্জাতিক ম্যাচের মর্যাদা।

Also Read - ফতুল্লার ইনিংসই গিলক্রিস্টের 'ক্যারিয়ার সেরা'

আইসিসির এমন উদ্যোগের পর বেশ আশাবাদী হয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তবে এবার বেঁকে বসেছে গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট দল নিউজিল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড সাফ জানিয়ে দিয়েছে, চুক্তিবদ্ধ একজন ক্রিকেটারকেও পাকিস্তানে পাঠাবে না তারা।

ক্রিকেটার না পাঠানোর পেছনে কারণ হিসেবে কিউই বোর্ডের দাবি, আন্তর্জাতিক ব্যস্ততার কারণে সফরে যেতে পারবেন না ক্রিকেটাররা। তবে মূল কারণ যে নিরাপত্তা-শঙ্কা, সেটি অনুমেয় সহজেই।

এ প্রসঙ্গে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট বলেন, চুক্তিবদ্ধ কেউই পাকিস্তানে ওই সময় যেতে পারছে না। অন্যান্য আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা রয়েছে। এই মুহূর্তে আমি এতটুকুই বলতে পারি… আসলে এটাই বাস্তবতা। আমরা এখনই নিশ্চিতভাবে সিরিজের বিষয় নিয়ে কিছু বলতে পারবো না। তবে ওই সময় আমাদের ব্যস্ততা থাকতে পারে। তাই ছেলেরা হয়তো সেখানে খেলতে পারবে না।

বিশ্ব-একাদশের হয়ে সিরিজটিতে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা ব্রেন্ডন ম্যাককালামের। এছাড়াও নিউজিল্যান্ডের চুক্তিবদ্ধ বেশ কয়েকজন জাতীয় দলের ক্রিকেটারও ঐ সফরের অংশ হিসেবে বিবেচনাধীন ছিলেন। কিউই বোর্ডের এমন অসম্মতিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ ফেরানোর আশায় থাকা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বড়সড় এক ধাক্কাই খেলো!

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম