বড় ভূমিকা রাখবে স্পিন : স্মিথ

0

বড় ভূমিকা রাখবেন স্পিন : স্মিথ
২৭ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়ার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। উপমহাদেশের ধীর ও মন্থর উইকেটে টেস্টে সব সময় স্পিনাররা রাখেন বড় ভূমিকা। বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজেও তার ব্যতিক্রম হবে না বলে মনে করছেন সফরকারী দল অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ।

বাংলাদেশে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ আয়োজিত হয়েছিল গত বছর। সেই টেস্টে দারুণ বোলিং করেছিলেন স্পিনাররা। মেহেদি হাসান মিরাজ ২ টেস্টেই শিকার করেছিলেন ১৯ উইকেট। উইকেটকে দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন স্পিনাররা। এছাড়া পুরোনো বলে রিভার্স সুইং দিয়ে ব্যাটসম্যানদের ভালোই ভোগান্তি দিয়েছেন ফাস্ট বোলাররা। স্মিথও মনে করছেন- স্পিন আর রিভার্স সুইংই হবে  এ সিরিজে দুই দলের অস্ত্র।

স্টিভেন স্মিথ বলেন, “পুরো সিরিজজুড়েই স্পিন সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখবে। উইকেট ক্ষয় হতে থাকবে তাই রিভার্স সুইংও প্রত্যাশিত।” 

Also Read - সিপিএলে ডাক পেলেন মাহমুদউল্লাহ

শক্তিমত্তার বিচারে টেস্টে বাংলাদেশের চেয়ে ঢের এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে টেস্টেও দারুণ খেলছে টাইগাররা। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় ও শ্রীলঙ্কাকে তাদের মাটিতে হারানোর পর টেস্ট নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী মুশফিকরা। স্টিভ স্মিথ ফেভারিটের তকমা দিলেন না কোনো দলকেই। তিনি বলেন, “আমি কোন দলকে ফেভারিট হিসেবে বেছে নিচ্ছি না।”

অপরিচিত কন্ডিশন নিয়ে স্মিথ বলেন, “আমরা যখনই উপমহাদেশে আসি, আমাদের জন্য কন্ডিশনটা অপরিচিত থাকে। আমরা দেশের মাটিতে যে ধরণের উইকেটে খেলে থাকি তার চেয়ে এটি সম্পূর্ণ ভিন্ন। স্পষ্টত, এটি আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ।”

এ বছরের মার্চে ভারত সফর করেছিল অস্ট্রেলিয়া। চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২-১ ব্যবধানে হেরে যায় স্মিথরা। তবে সিরিজ হারলেও ভারতের মাটিতে খেলার অভিজ্ঞতা সাহায্য করবে বলে মনে করবেন স্মিথ। তিনি বলেন, “ভারতে সর্বশেষ খেলা টেস্ট সিরিজ থেকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পেরেছি।” 

২০০৬ সালে রিকি পন্টিংয়ের নেতৃত্বে বাংলাদেশে টেস্ট খেলেছিল অজিরা। দীর্ঘ ১১ বছর পর বাংলাদেশের মাটিতে টেস্ট খেলবে অস্ট্রেলিয়া।