মুশফিকের চোখে ব্যাটসম্যানদের জন্য তিনটি ‘চ্যালেঞ্জ’

0

দরজায় কড়া নাড়ছে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ। আর দিন-দশেক পরই শুরু হবে টাইগার ও ক্যাঙ্গারুদের লড়াই। এর আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম দলের ক্রিকেটারদের বাতলে দিচ্ছেন অজি-বধের উপায়। অবশ্য সেই উপায়গুলো মূলত ব্যাটসম্যানদের জন্যই।

সম্প্রতি দেশের শীর্ষ দৈনিক প্রথম আলোর সাথে আলাপকালে মুশফিক তুলে ধরেন অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা।

Also Read - ৪৬-এ পা দিলেন হাবিবুল বাশার

লক্ষ্য সম্পর্কে বলতে গিয়ে মুশফিক জানান, ‘প্রতিটি বিভাগেই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে সিরিজ জিততে চাই। ব্যক্তিগত দৃষ্টিকোণ থেকেই বলুন অথবা দলীয় দৃষ্টিকোণ থেকে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এটাই আমার লক্ষ্য।’

অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের মোকাবেলা করতে গেলে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের তিনটি চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হতে পারে বলে মনে করছেন মুশফিক। তিনি জানান- নতুন বলের সামলানো, উইকেট বরাবর বল ও রিভার্স সুইং এবং অজিদের স্পিনকে ঠেকানোই বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মূল তিনটি কাজ হিসেবে বিবেচিত হবে।

মুশফিক বলেন, ‘ওই তিনটি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্যই দুই মাস ধরে আমরা অনুশীলন করছি। নতুন বলটা দ্রুত পুরনো হয়ে রিভার্স সুইং শুরু হয়ে না গেলে অনেক ভালো করবে আমাদের ব্যাটসম্যানরা।’

অস্ট্রেলিয়ার বোলিং আক্রমণভাগ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘লায়নকে পা ব্যবহার করে খেললে সফল হওয়া যাবে। অ্যাগার ও সুইপসন যদি খেলে, ওরা অনেক বাজে বল দেবে বলে আমার ধারণা। কাজেই ধৈর্য ধরে খেললে সাফল্য আসবে। লায়ন ও হ্যাজলউড অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ উইনিং বোলার। ওদের বেশি উইকেট না দিয়ে একটু সতর্ক হয়ে খেলতে হবে।’

সিরিজে বাংলাদেশ থাকবে স্বাগতিকদের ভূমিকায়। অস্ট্রেলিয়ার কাছে ঢাকা কিংবা চট্টগ্রামের মাটি অচেনা তো বটেই, সেই সাথে দলটির শঙ্কার বিষয় উপমহাদেশে ওদের টানা ব্যর্থতা। তবে সম্প্রতি ভারত সফর করে যাওয়ায় অজিরা খুব বেশি অনভ্যস্ত থাকবে না বলেই মনে করছেন মুশফিক, ‘ওরা সম্প্রতি ভারতে লম্বা একটা সিরিজ খেলেছে। আমাদের উইকেটের চরিত্র হয়তো ভারতের উইকেটের চেয়ে একটু ভিন্ন হবে, তারপরও ওরা মোটামুটি অভ্যস্ত হয়েই আসবে।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম