ম্যাচ জেতানো স্পেলের স্বপ্ন তাসকিনের

0

Taskin Ahmed during Press Conference
এখন পর্যন্ত চারটি টেস্ট খেলেছেন ডানহাতি ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ। কিন্তু সবকটিই বিদেশের মাটিতে। দেশের মাটিতে এখনো সাদা পোশাকে মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশের এ গতি তারকার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৪ সদস্যের স্কোয়াডে পেয়েছেন সুযোগ। একাদশে জায়গা পেলে প্রথমবারের মতো খেলবেন ঘরের মাঠে টেস্ট। তাসকিনের স্বপ্ন ঘরের মাঠে অভিষেকে ম্যাচ জেতানো স্পেল করতে।

২০১৪ সালে রঙিন পোশাকে অভিষেক হয়েছিল তাসকিনের। টেস্ট ক্রিকেটের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে বহুদিন। অভিষেক হয়েছিল নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। এরপর খেলেছেন ভারত ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। চার টেস্টের অভিজ্ঞতা থেকে তাসকিন বলছেন, “বেশি টেস্ট খেলিনি। চারটা ম্যাচ খেলে আমার মনে হয়েছে, এই ফরম্যাট অনেক কঠিন। এটা কঠিন একটা জায়গা।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাসকিনের শুরুটা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই। সেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এবার নামছেন টেস্ট খেলতে। ইচ্ছে আছে ওয়ার্নার আর স্মিথের উইকেট নেওয়ার।  তাসকিন বলেন, “টেস্টে প্রতিটা উইকেটই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা দারুণ ফর্মে। অভিজ্ঞদের সাথে নতুনরা ভালো করছে। স্বপ্নের উইকেট বলতে ওয়ার্নার-স্মিথ। তবে একটা ম্যাচ জেতানো স্পেল করতে চাই।”

Also Read - পেসারদের নিয়ে আশাবাদী তাসকিন

ম্যাচ জেতানো স্পেলের স্বপ্ন তাসকিনের

উইকেট মন্থর হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। সেখানে হয়তো বল হাতে বড় ভূমিকা রাখবেন স্পিনাররা। তারাই নির্ধারণ করবে ম্যাচের ভাগ্য। পেসারদের জন্য কাজটা একটু কষ্টকরই।

ম্যাচ জেতানো স্পেল বলতে ‘পাঁচ-সাত’ উইকেট নেওয়া মনে করেন না তাসকিন। তার মতে একটা গুরুত্বপূর্ণ জুটি ভেঙে দেওয়া কিংবা দ্রুত দুইটা উইকেটও ঘুরিয়ে দিতে পারে ম্যাচের মোড়।

তাসকিন বলেন, “উইনিং স্পেল মানে পাঁচ-সাত উইকেট নেওয়া নয়। বরং ভালো কিছু ওভার করা। দেখা গেল, স্পিনাররা পাঁচ-সাতটা উইকেট নিয়েছে। এর মাঝখানে একটা জুটি হয়ে গেল, সেটা ভেঙে দুটি উইকেট নিয়ে নিলাম। যা দলের জন্য খুব সহায়ক হবে।”

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামতে মুখিয়ে আছেন ২২ বছর বয়সী তাসকিন। স্কোয়াডে থাকতে পারে দারুণ আনন্দিত।  এবার অপেক্ষা করছেন মাঠের লড়াইয়ে নিজেকে মেলে ধরার।