সাকিব-তামিমে মুগ্ধ লায়ন

0

দশ রানে তিন উইকেট হারিয়ে দিশেহারা ছিল বাংলাদেশ। এরপর চতুর্থ উইকেটের জুটিতে হাল ধরেন তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। তাদের ১৫৫ রানের জুটিতে বেগ ফিরে পায় বাংলাদেশ। বিপর্যস্ত দলকে পথ দেখান দুজন। অন্যরা যখন ব্যাট হাতে বিবর্ণ তখন ব্যাট হাতে মুগ্ধতা ছড়ান তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান।

অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের টার্ন আর হঠাৎ বাউন্স ভালোই সামাল দিয়েছেন সাকিব-তামিম। তামিমের ব্যাট থেকে এসেছে ৭১ রান। সাকিব আল হাসান করেছেন ৮৪। তাদের এমন ব্যাটিংয়ে লায়ন মুগ্ধ, বিস্মিত। লায়ন বলেন, “দুজনেই খুব সাহস দেখিয়ে ব্যাটিং করেছে। তারা দুজনেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে। এ ধরণের কন্ডিশনে এমনটাই প্রয়োজন। এ ধরণের উইকেটে জুটি গড়তে পারলে বড় রান গড়া সম্ভব।”

Also Read - ইংল্যান্ড সফরের জন্য এইচপি দল ঘোষণা

সাকিব ও তামিমকে পূর্ণ কৃতিত্ব দিয়েছেন লায়ন। সাকিব-তামিমের এ জুটিটি চতুর্থ উইকেটে টেস্টে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জুটি। সাকিব ও তামিমকে অভিনন্দনও জানিয়েছেন লায়ন। তিনি বলেন, “আমি ওদেরকে পূর্ণ কৃতিত্ব দেব। ওরা দুজন দারুণ ক্রিকেটার, অবিশ্বাস্য সব শট খেলেছে। ওদেরকে টুপি খোলা অভিনন্দন।”

ব্যাট হাতে লায়নের ওপর প্রায় চড়াও হয়েছেন সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। ডাউন দ্যা উইকেটে এগিয়ে এসে লায়নের বলেই তিনটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন তামিম ইকবাল।

সাকিব-তামিমের জুটি ভাঙার পর আর কোনো বড় জুটি গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। ফলে বড় স্কোরও গড়া হয়নি।

প্রথম ইনিংসে তিন উইকেট শিকার করেন লায়ন। ২৬০ রান করে থামে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮ রান করেছে তারা। ২৪২ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারী অজিরা। ক্রিজে টিকে আছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ম্যাট রেনশ এবং অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ।