হোঁচট দিয়ে সিপিএল শুরু সাকিবদের জ্যামাইকার

0

হোঁচট দিয়ে শুরু সাকিবদের জ্যামাইকার

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নজ্যামাইকা তালাওয়াহস প্রত্যাশার ছিটেফোঁটাও পূরণ করতে পারেনি প্রতিযোগিতাটির পঞ্চম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে। ফলস্বরুপ বার্বাডোস ট্রাইডেন্টসের বিপক্ষে ১২ রানের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাদের।

১৪৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে জ্যামাইকার ইনিংস ১৩০ রানে থামলে এ পরাজয়ের স্বাদ নিতে হয় সাঙ্গাকারা-সাকিব-সিমন্সদের নিয়ে গড়া এ দলকে।

Also Read - পিএইচডি করছেন মুশফিক

অথচ ইনিংসের প্রথম ওভারে ১৫ রান এনে দিয়ে লেন্ডল সিমন্স ইঙ্গিত দিয়েছিলেন অন্য সুরের। সাঙ্গাকারা প্রথম বলে ফিরে গেলেও বিপর্যয় না বাড়তে দিয়ে ম্যাককার্থিকে সাথে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সিমন্সের সাবলীল ব্যাটিং সবই ছেপে গেছে পরাজয়ে।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৬২ রান যোগ করার পর ইমরান খান আক্রমণে এসে ২২ রান করা ম্যাককার্থিকে ফিরিয়ে ভাঙ্গন ধরান জ্যামাইকার ইনিংসে। এরপর বালির বাধের মতো আচমকা জ্যামাইকার ব্যাটিং লাইন আপে নেমে আসে ধ্বস। যে ধ্বসে সাকিব আল হাসান, সিমন্স, জেএ ফো এর উইকেট হারিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ হারায় জ্যামাইকা।

৭৭ রানে ১ উইকেটে থেকে মুহূর্তেই ৮৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে দলটি আর এতেই মূলত ম্যাচও থেকে ছিটকে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। সিমন্স ৫৩ রান করলেও বাকি ব্যাটসম্যানরা ছিলেন অতিসাধারণ। যারফলে তাদের ইনিংস শেষ হয় হার নিয়ে ১৩০ রানে।

জ্যামাইকার পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট পান ম্যাচসেরা নির্বাচিত হওয়া হোসেন। আর একটি করে উইকেট শিকারের সন্ধান পান রামপাল ও ওয়াহাব রিয়াজ।

এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের মাঝপথে ব্যাটিং বিপর্যয়ের পরও শোয়েব মালিকের ৩৩, পার্নেলের ২৫ আর ওয়াহাব রিয়াজের ঝড়ো ২২ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রানের পুঁজি পায় বার্বাডোস।

জ্যামাইকার বোলারদের মধ্যে ইমাদ ওয়াশিম ও সান্তোকি দু’টি করে উইকেট নেন। তাছাড়া বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান শিকার করেন ডোয়াইন স্মিথের মূল্যবান উইকেটটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-
বার্বাডোস ট্রাইডেন্টসঃ ১৪২/৭ (২০ ওভার)
মালিক ৩৩, পারনেল ২৫; ইমাদ ১৬/২
জ্যামাইকা তালাওয়াহসঃ ১৩০/৬ (২০ ওভার)
সিমন্স ৫৩, ম্যাককার্থি ২২; হোসেন ২৪/২

ফলাফলঃ বার্বাডোস ট্রাইডেন্টস ১২ রানে জয়ী।