কোচের বিরুদ্ধাচরণে উমর আকমলের উপর নিষেধাজ্ঞা

0

বিতর্ক আর উমর আকমল যেন হয়ে দাঁড়িয়েছে একে অপরের প্রতিশব্দ! একের পর এক সমালোচনার জন্ম দেওয়া পাকিস্তানি ক্রিকেটার এবার ঘটিয়েছেন আরেক কাণ্ড। আর এতে তার উপর ঝুলেছে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা ও মোটা অঙ্কের জরিমানা।

কোচের বিরুদ্ধাচরণে উমর আকমলের উপর নিষেধাজ্ঞা

গত আগস্ট মাসে পাকিস্তান জাতীয় দলের কোচ মিকি আর্থারের বিরুদ্ধে অদ্ভুত এক অভিযোগ তুলেছিলেন উমর আকমল। সাংবাদিকদের ভরা মজলিসে তিনি দাবি করেন, লাহোরে জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প চলার সময় প্রচণ্ড বাজে ভাষা ব্যবহার করেছেন আর্থার। এ সময় তিনি তার অভিযোগ তদন্তের অনুরোধ জানান।

Also Read - 'মুশফিক কিপিং করে তাইজুলকে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত ছিল'

উমর আকমলের অভিযোগ প্রথমে আমলেই নিয়েছিল দেশটির ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। জাতীয় দলের ক্রিকেটার হয়ে আকমল কি আর মিথ্যাচার করবেন! তবে তদন্ত করতেই বেরিয়ে এলো থলের বিড়াল। জানা গেছে, উমর আকমলের অভিযোগটি সম্পূর্ণই মিথ্যা।

ডানহাতি ব্যাটসম্যানের কথায় মাথা ঘামিয়ে ব্যাপারটি নিয়ে তদন্ত করতে নেমেছিল পিসিবি। বোর্ড পরিচালক হারুন রশীদ, মিডিয়া পরিচালক আমজাদ হুসেইন ও আইনি মহাব্যবস্থাপক সালমান নাসিরের ডিসিপ্লিনারি কমিটি কথাও বলে উভয় পক্ষের সঙ্গে। তাতে দেখা গেছে, নির্দোষ মিকি আর্থার, আর দোষ সব চেপেছে উমর আকমলের ঘাড়েই।

শাস্তি হিসেবে বেশ বড় পদক্ষেপই নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। উমর আকমলকে আগামী তিনটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। শুধু তা-ই নয়, আছে জরিমানার অঙ্কও। পাকা দশ লক্ষ পাকিস্তানি রূপী আকমলকে জমা দিতে হবে পিসিবির কাছে জরিমানা হিসেবে। শাস্তি শেষ নয় এখানেই। আগামী দুই মাস বিদেশের কোনো ঘরোয়া টি-২০ লিগে এই ক্রিকেটারের অংশ নেওয়ার উপরেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

দুদিন পরপর অদ্ভুত কাণ্ড ঘটিয়ে ক্রিকেট-বিশ্বকে বিনোদনের খোরাক এনে দেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। তাতে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে পাকিস্তান ও দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। উমর আকমলের উপর পিসিবির আরোপিত শাস্তি দেখে এবার যদি একটু শিক্ষা হয় ক্রিকেটারদের!

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম