ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস নিয়েই চট্টগ্রামে ফিরলেন সাব্বির

0

সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রথম ইনিংসে কোন রান করার আগেই কট বিহাইন্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে ছিলেন সাব্বির রহমান। দ্বিতীয় ইনিংসেও সুবিচার করতে পারেননি নিজের নামের প্রতি। দলের প্রয়োজনের মুহূর্তে আউট হয়েছিলেন ২২ রান করে। ঢাকা টেস্টে তার আউটের ধরন নিয়ে হয়েছিল অনেক সমালোচনা, প্রশ্ন উঠেছিল টেস্ট দলে তাঁর ভূমিকা নিয়েও। সব সমালোচনার জবাব নিয়ে যেন চট্টগ্রামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ফিরলেন সাব্বির রহমান।

ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস নিয়েই চট্টগ্রামে ফিরলেন সাব্বির

দলের বিপদের সময় ক্রিজে এসে মুশফিকের সাথে শতরানের জুটি যোগ করার পাশাপাশি এখনো পর্যন্ত টেস্ট ক্যারিয়ারের সেরা ইনিংসটি উপহার দিলেন ভক্ত ও সমালোচকদের। শুধু তাই নয় দিনশেষে দলকে নিয়ে স্বস্তিজনক অবস্থানে নিয়ে যেতে ভূমিকা পালন করলেন অসামান্য।

Also Read - সমানতালে লড়ছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া

৭ টেস্টের ছোট্ট ক্যারিয়ারে মারকুটে বাংলাদেশি এই ব্যাটসম্যানের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস ছিল অপরাজিত ৬৪ রানের ইনিংস। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একই ভেন্যুতে গত বছর ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসটি পেয়েছিলেন সাব্বির। সে ম্যাচে দলের জয়ের জন্য শেষ পর্যন্ত লড়লেও বাংলাদেশ জিততে পারেনি তবে তিনি ক্যারিয়ারের শুরুতেই ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন নিজের সামর্থ্যের। ছোট্ট ক্যারিয়ারের সেই সেরা ইনিংসটিকে সোমবার টপকে গেলেন তিনি। ৬৬ রানে দূর্ভাগ্যজনকভাবে স্টাম্পড হওয়ার আগে ৬৬ রান করে ক্যারিয়ারের নতুন সর্বোচ্চ রানের ইনিংস গড়লেন তিনি। আবারো জানান দিলেন সামর্থ্যের।

৬৬ রান করার ফলে সাব্বির রহমানের ৭ টেস্ট ও ১৫ ইনিংসের ক্যারিয়ারে অর্ধশতকের সংখ্যাটা এখন গিয়ে দাঁড়ালো চারে। যারমধ্যে অর্ধেক অর্থাৎ, দুটি অর্ধশতকের ইনিংসই এসেছে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে।  তাছাড়া এই ইনিংসের পর গড়টা বৃদ্ধি পেয়েছে তার। যা ২৯+ থেকে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩২.১৫ এ।

প্রসঙ্গত, টেস্ট ক্যারিয়ারে সাব্বিরের মোট রান সংখ্যা বর্তমানে ৪১৮। উল্লেখ্য, তাঁর ক্যারিয়ারের চারটি অর্ধশতকের মাঝে দুটি দেশের মাটিতে আর দুটি ৫৪ ও ৫০ রানের ইনিংস এসেছে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে।