চিটাগংয়ে সানজামুল-বাবু-তানভীর

0

আন্তর্জাতিক অঙ্গনের কোনো তারকা ক্রিকেটার নয়, ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত মুখই বেশি চিটাগংয় ভাইকিংসের প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে বাছাই করা ক্রিকেটারদের মধ্যে। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরমারদের উপরেই ভরসা রেখেছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।। প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে দলটি বেছে নিয়েছে নয়জন ক্রিকেটার।

ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরমারদের ওপর ভরসা ভাইকিংসের

 

Also Read - 'মিস করি, অসাধারণ ক্যাচও তো ধরি'

শনিবার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয় প্লেয়ার্স ড্রাফট। প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে সাতজন দেশি ক্রিকেটার ও দুইজন বিদেশী ক্রিকেটারকে দলে ভিড়িয়েছে সৌম্য সরকারের চিটাগং ভাইকিংস। দেশের ক্রিকেটারদের দলে ভেড়ানোর প্রথম সুযোগে স্পিনার সানজামুল ইসলামকে ডাকে চিটাগং ভাইকিংস। এ বাঁহাতি স্পিনার গত আসরে খেলেছিলেন চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে।

 

 

এছাড়া উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুর  এবং ইয়াসির আরাফাতের মতো তরুণ ক্রিকেটারদেরও দলে নিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাট হাতে ইতিমধ্যেই নিজেকে প্রমাণ করা মোহাম্মদ আলামিনকে দলে ভিড়িয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

দুইজন অলরাউন্ডার দলে টেনেছে চিটাগং ভাইকিংস। পেস বোলিং অলরাউন্ডার আলাউদ্দিন বাবু ও লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার তানভীর হায়দার কে দলে নিয়েছে তারা।

দুইজন বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে একজন হলেন ইংল্যান্ডের লুইস রিইস। এ বাঁহাতি ব্যাটিং অলরাউন্ডার এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেননি। কাউন্টি ক্রিকেটে ডার্বিশায়ারের হয়ে খেলেন তিনি। অন্যজন হলেন আফগান অলরাউন্ডার নাজিবুল্লাহ জাদরান। আফগানিস্তানের এ ২৪ বছর বয়সী অলরাউন্ডার খেলেছেন ৪০ টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ। বাঁহাতি ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতি অফস্পিন করে থাকেন নাজিবুল্লাহ জাদরান।

প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে চিটাগং ভাইকিংসের বাছাই করা ক্রিকেটাররাঃ

বাংলাদেশের ক্রিকেটারঃ সানজামুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলামিন, আলাউদ্দিন বাবু, তানভির হায়দার, ইরফান শুক্কুর, নাঈম হাসান এবং ইয়াসির আরাফাত।

বিদেশি ক্রিকেটারঃ লুইস রিইস (ইংল্যান্ড) এবং নাজিবুল্লাহ জাদরান (আফগানিস্তান)।