চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত দল, জানালেন মুশফিক

0

দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে এখন বাংলাদেশ দল প্রস্তুত হচ্ছে ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া টেস্ট সিরিজের জন্য। আর এই সিরিজের আগে বেশ আত্মবিশ্বাসী টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

ম্যানেজমেন্টের কথা শোনেননি মুশফিক!

ভিনদেশে ও অনভ্যস্ত কন্ডিশনে খেলা বলে দক্ষিণ আফ্রিকায় ভালো করা বাংলাদেশের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং। তবে মুশফিক জানিয়েছেন, চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত আছে বাংলাদেশ দল।

Also Read - রোহিঙ্গাদের পাশে সাকিব আল হাসান

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মুশফিক বলেন, ‘অবশ্যই ফ্লাট উইকেট সফরকারীদের জন্য কঠিন হবে। তবে, এই চ্যালেঞ্জ নিতে আমরা প্রস্তুত।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা জানি এখানকার কন্ডিশন কতটা কঠিন হয় সফরকারীদের জন্য। এখানকার উইকেট ক্ষণে ক্ষণে আচরণ বদলায়। তাদের ভারসাম্যপূর্ণ সেরা দলটিই আমাদের বিপক্ষে খেলবে।’

অতিথি দল হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার গতিময় উইকেটের সাথে বাংলাদেশের মানিয়ে নিতে হবে জানিয়ে এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান বলেন, ‘আমরা জানি, দক্ষিণ আফ্রিকায় অতিথি দলগুলো গতিময় উইকেটের কারণে সমস্যায় পড়ে। আমাদেরও মানিয়ে নিতে হবে। ছেলেরা সেরাটা দিতে তৈরি এবং আমরা বিশ্বকে দেখিয়ে দিতে চাই, এই ধরনের কন্ডিশনেও আমরা ভালো খেলতে পারি। দক্ষিণ আফ্রিকা শক্তিশালী হলেও আমরা এই চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত।’

মুশফিক জানান, ভিন্ন পরিবেশ হলেও দ্রুত সেখানকার কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন খেলোয়াড়েরা, ‘আমরা কন্ডিশনের সঙ্গে দ্রুতই মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। ওদের ভিলিয়ার্স, স্টেইন ও ফিল্যান্ডারের না থাকাটা সম্ভবত আমাদের কিছুটা হলেও এগিয়ে রাখবে। আমাদের জন্য এটা দারুণ সুযোগ।’

দক্ষিণ আফ্রিকা পেসারদের জন্য স্বর্গরাজ্য হলেও বাংলাদেশের স্পিনাররা সেখানে ভালো করবেন বলে মনে করছেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘এই কন্ডিশনে আমাদের একাধিক স্পিনার ভালো করবে বলে মনে হচ্ছে। যদি স্পিনাররা ভালো জায়গায় বল ফেলতে পারে তাহলে তারাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেবে। উইকেটে যদি এতটুকুও স্পিন ধরে, আমি আশাবাদী ভালো কিছু আমাদের পক্ষেই আসবে।’

মুশফিক আরও যোগ করেন, ‘বিদেশের মাটিতে আমরা খুব বেশি টেস্ট খেলিনি। তবে গত আড়াই বছরে আমরা দল হিসেবে উন্নতি করছি। এখান থেকেই শুরু হতে পারে আমাদের পরবর্তী ধাপ।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম