নাসিরের কন্ঠে আক্ষেপের সুর

0

চট্টগ্রামে সিরিজ নির্ধারণী টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে করা ৩০৫ রানের জবাবে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে চালকের আসনে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশি বোলাররা সফরকারীদের ইনিংসে এমনিতেই তেমন একটা চাপ সৃষ্টি করতে পারেনি তাও যে কয়টা সুযোগ এসেছিল তাও ফিল্ডারদের ব্যর্থতায় নষ্ট হয়ে গেছে। দিনের খেলা শেষে সুযোগ হাতছাড়া করার আক্ষেপ ছুঁয়ে গেছে নাসির হোসেনকে।

পরিকল্পনা করে রেখেছেন নাসির
পরিকল্পনা করে রেখেছেন নাসির

দ্বিতীয় দিনের খেলা নিয়ে দিনশেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আক্ষেপের সুর দেখা গেল জাতীয় দলের এই ক্রিকেটারের কন্ঠে। ওয়ার্নারের দু-দু’বার আউট করার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ। নাসির মনে করেন দ্বিতীয় দিনে এখানেই পিছিয়ে গেছে স্বাগতিকরা।

ওয়ার্নারের দু’বার জীবন ফিরে পাওয়া প্রসঙ্গে নাসির হোসেন বলেন, ‘ক্যাচটি ধরতে পারলে দিন শেষে অবশ্যই ব্যাপারটা অন্যরকম হত। ওদের তিন উইকেট পড়ে যেত। যদিও ক্যাচটি ফিফটি-ফিফটি ছিল। স্ট্যাম্পিংয়ের বলটি খুব নিচু হয়ে ছিল। তারপরও যদি নিতে পারতাম, ভালো হত।’

Also Read - ইংল্যান্ডের উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন শান্ত-মোসাদ্দেকরা

অজি অধিনায়ক স্মিথের আউটের পরও ফিল্ডিংয়ে রক্ষণাত্বক ছিল বাংলাদেশ। যার পুরো ফায়দা তুলে নিয়েছে অজি দুই ব্যাটসম্যান হ্যান্ডসকম্ব ও ওয়ার্নার। সুযোগ কাজে লাগিয়ে ৩৫.৫ ওভারে দলের স্কোরবোর্ডে দু’জনে মিলে যোগ করেছেন ১২৭ রান। ফিল্ড সেট নিয়ে নাসির বলেন, ‘আমরা ফিল্ডিংয়ে রক্ষণাত্মক ছিলাম আবার আক্রমণাত্মকও ছিলাম। আপনি যদি দেখেন, ওয়ার্নারকে সাকিব ছয়-সাত নম্বর স্ট্যাম্পের দিকে (বেশি অফসাইডে) বল করছে। ওইটা ওর জন্য খেলা কঠিন। উইকেটের বলে টার্ন করছিল না। তাই বাইরে খেলাচ্ছিল। এছাড়া বাউন্ডারির লাইনে ফিল্ডার ছিল, কারণ ব্যাটসম্যান দুজনই সেট ছিল।’

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় দিন শেষে অপরাজিত থাকা দুই ব্যাটসম্যান ওয়ার্নার ৮৮ ও হ্যান্ডসকম্ব ৬৯ রান নিয়ে বুধবার চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনেরর খেলা শুরু করবেন।