নির্বাচকদের ‘ভুল’ প্রমাণ করছেন বিজয়

0

ঘরোয়া লিগে ‘সফল ব্যাটসম্যান’-এর তকমা ধরে রেখেছেন বেশ কয়েকদিন হল। তবুও জাতীয় দলের দরজা পুরোপুরি খুলছে না এনামুল হক বিজয়ের। আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের দলে তাকে দলে চেয়েছিলেন খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। কিন্তু বোর্ড সভাপতির সুদৃষ্টি অর্জন করে নিলেও মন গলেনি নির্বাচকদের, আর তাই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দলেও ব্রাত্য তিনি।

নির্বাচকদের 'ভুল' প্রমাণ করছেন বিজয়

তবে তাকে দলে না রেখে যে নির্বাচকরা ভুল করেছেন, সেই প্রমাণ বিজয় দিলেন চলমান জাতীয় লিগে। খুলনায় স্বাগতিক দলের ভূমিকায় থেকে বিজয় হাঁকিয়েছেন দুর্দান্ত সেঞ্চুরি। অবশ্য সেটি পুরনো খবর। শুক্রবার শুরু হওয়া ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে বিজয় যখন মাঠ ছাড়েন, তখনই তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে ১০৫ রান। বৃষ্টিবিঘ্নিত তৃতীয় দিন খেলা হয়নি প্রত্যাশা অনুযায়ী। তবে যথারীতি আলো ছড়িয়েছেন তিনি।

Also Read - শিরোপা ধরে রাখতে চায় ঢাকা

আবু নাসের স্টেডিয়ামে প্রতিপক্ষ রংপুরের বোলারদের ধৈর্যের বড় পরীক্ষা নিয়ে বিজয় যখন চতুর্থ দিন সমাপ্তির সাক্ষী হিসেবে অপরাজিত ব্যাটসম্যান হয়ে প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটছেন, তার রান সংখ্যা তখন ১৭২। ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত কোনো ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকাতে পারেননি ২৪ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। তবে ম্যাচের চতুর্থ ও শেষ দিন একটু চেষ্টা করলেই অধরা কীর্তি স্পর্শ করতে পারবেন প্রতিভাবান এই ক্রিকেটার।

বিজয়ের ১৭২ রানের ইনিংসে ভর করে রংপুরের ৪৭১ রানের পাহাড়ের ভালোই জবাব দিচ্ছে খুলনা। শতকের দেখা পেয়েছেন খুলনার ওপেনার রবিউল ইসলাম রবিও। তৃতীয় দিন শেষে খুলনার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩৪২ রান। এখনও স্বাগতিকরা প্রতিপক্ষ রংপুরের চেয়ে পিছিয়ে আছে ১২৯ রানে।

খুলনা বিভাগের কুষ্টিয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করা এনামুল হক বিজয় এখন জাতীয় ক্রিকেট লিগ- এনসিএলে নিজ বিভাগের প্রতিনিধিত্ব করছেন। বাংলাদেশ জাতীয় দলের একসময়ের অনিবার্য অংশ ছিলেন তিনি। দেশের জার্সি গায়ে অল্প সময়ের ব্যবধানেই ৪টি টেস্ট, ৩০টি ওয়ানডে ও ১৩টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ইনজুরির কারণে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর ভালো পারফর্ম করেও ফের দলে জায়গা করে নিতে পারছেন না তিনি।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম