SCORE

Trending Now

প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেই তামিম

Share Button

বাংলাদেশের ইনিংসের শুরু মানেই যেন তামিম ইকবাল। ২০০৭ সাল থেকে খেলছেন বাংলাদেশের হয়ে। সব ইনিংসেই ওপেনিং করেছেন তিনি। ইনিংস সূচনায় তার সঙ্গী বদলেছে তবে বদলাননি তার অবস্থান। প্রায় ১০ বছরের ক্যারিয়ারে এবারই ঘটলো ব্যাতিক্রম। পচেফস্ট্রুমে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ওপেনিংয়ে নামেননি তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমেছেন লিটন কুমার দাস ও ইমরুল কায়েস।

প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেই তামিম

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টের আগে ৫১ টি টেস্ট খেলেছেন তামিম ইকবাল। ৫১ টেস্টে ব্যাটিং করেছেন ৯৮ ইনিংসে। প্রত্যেকটিতেই নেমেছেন ওপেনিংয়ে। প্রত্যেক ইনিংসেই ইনিংসের প্রথম বল সামলেছেন তিনি।

Also Read - বৃষ্টির কারণে এনসিএলে ম্যাড়মেড়ে দিন

আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছেন ১৭৩ টি। তার মধ্যে ব্যাটিংয়ে নেমেছেন ১৭১ ইনিংসে। এখানেও ব্যাতিক্রম নয়। প্রত্যেকটিতে নেমেছেন ওপেনিংয়ে। ১৬৪ ইনিংসে সামলেছেন ইনিংসের প্রথম বল। বাকি সাত ইনিংস ওপেনিং করেছেন নন-স্ট্রাইকিং প্রান্তে নেমে।

৫৯ আন্তর্জাতিক টি-২০ তে সব ম্যাচেই ব্যাট করেছেন তামিম। সব ম্যাচেই নেমেছেন ওপেনিং করতে। টেস্টের মতো টি-২০ তেও প্রত্যেক ইনিংসের প্রথম বল মোকাবেলা করেছেন তামিম ইকবাল।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এবারই প্রথমবারের মতো ওপেনিং ছাড়া ব্যাটিংয়ে নামতে হবে তামিম ইকবালের। দ্বিতীয় সেশনে বেশ কিছুক্ষণ সময় ধরে মাঠের বাইরে ছিলেন তিনি। এ সময় নিজেদের ইনিংস ঘোষণা করে দেয় স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। নিয়ম অনুসারে তামিম যতক্ষণ বাইরে ছিলেন, বাংলাদেশের ইনিংসে তত সময় পার না হওয়া পর্যন্ত নামতে পারবেন না তিনি।

বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস ওপেনিং করেছেন লিটন কুমার দাস ও ইমরুল কায়েস। এই প্রথমবারের মতো ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমেছেন লিটন। কায়েসের সঙ্গে লিটনের ওপেনিং জুটির স্থায়ীত্ব ছিল ৩৪ বল। ষষ্ঠ ওভারের চতুর্থ বলে দলীয় ১৬ রানের মাথায় কাগিসো রাবাদার বলে এডেইন মারক্রামের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৭ রান করে ফিরে যান ইমরুল কায়েস। ৩ উইকেটে ৪৯৬ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেছে প্রোটিয়ারা।

Related Articles

‘চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলেছি’

মাঠের বাইরের নাটকে রিজার্ভ ডে’তে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে কুমিল্লা

বৃষ্টি হলে মাশরাফিদের ক্ষতি, কুমিল্লার লাভ!

‘আমাদের ভুলগুলো শুধরে নিলেই হবে’