প্রোটিয়াদের দুর্বলতা কাজে লাগাতে চান হাথুরুসিংহে

0

নিজেদের মাটিতে সব দলই অতিরিক্ত কিছু সুবিধা পায়। তার উপর দলটি যখন দক্ষিণ আফ্রিকা, প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ একটি ব্যাকফুটেই থাকার কথা।

তবে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে যথারীতি বেশ আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে কোচের ভাষ্য অনুযায়ী, দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্বল জায়গাগুলো ব্যবহার করে সফলতা পাওয়ার চেষ্টা করবে সফরকারী বাংলাদেশ।

Also Read - বাংলাদেশকে শক্তিশালী দল হিসেবে দেখছেন গিবসন

দক্ষিণ আফ্রিকা যে বিশ্ব ক্রিকেটের পরাশক্তি, সেটি অবলীলায় মেনে নিচ্ছেন সাবেক লঙ্কান ক্রিকেটার হাথুরুসিংহে। এমনকি প্রোটিয়াদের তিনি আখ্যা দিচ্ছেন গত ১০ বছরের সেরা দল হিসেবেও! তাদের মাটিতে তাদের বিপক্ষে খেলাটা তাই বাংলাদেশের কোচের চোখে চ্যালেঞ্জিংই।

হাথুরুসিংহে বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা যে কোনো দলের জন্যই বড় চ্যালেঞ্জ। সম্ভবত তারা গত ১০ বছরের অন্যতম সেরা দল। চ্যালেঞ্জ অবশ্যই।

তবে চ্যালেঞ্জের জন্যই যে ক্রিকেট খেলেন, সেটি জানাতেও ভুলেননি তিনি। তার মতে, আমরা ক্রিকেট খেলি এটির জন্যই। আমাদের জন্য এটি সুযোগ নিজেদের অবস্থান দেখার, যে আমরা কোথায় আছি। আমরা চ্যালেঞ্জটা গ্রহণ করছি, চ্যালেঞ্জটাকে আলিঙ্গন করছি।

এই সিরিজের মাধ্যমে দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হিসেবে অভিষেক হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক ক্রিকেটার ওটিস গিবসনের। নতুন কোচের প্রথম সিরিজ কিছুটা হলেও স্বাগতিকদের জন্য চ্যালেঞ্জিং। সেই সাথে আছে চোট সমস্যা। ইতোমধ্যে চোটের কারণে টেস্ট সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন ডেল স্টেইন, ভারনন ফিল্যান্ডার, ক্রিস মরিসের মতো তারকা ক্রিকেটাররা। সবকিছু হাথুরুসিংহে মনে করছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলার জন্য সবচেয়ে উত্তম সময় এটিই।

তিনি বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে খেলতে চাইলে, আমার মনে হয় সেরা সময় এখনই। ওদের কোচ নতুন, বেশ কিছু চোট সমস্যাও আছে। ওদের সঙ্গে খেলার ভালো সময় এটি।

সেক্ষেত্রে শিষ্যদের করণীয় হবে কী, জানালেন সেটিও- বেশ কিছু নতুন ক্রিকেটার এসেছে ওদের। আমাদের জন্য তাই সুযোগ ওদের টপ অর্ডারে আঘাত হেনে দ্রুত মিডল অর্ডারে যাওয়ার। আমরা চেষ্টা করব ওদের এই দুর্বলতা কাজে লাগানোর।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম