‘প্র্যাকটিস ম্যাচ থেকে অনেক আত্মবিশ্বাস পেয়েছি’

0

আর মাত্র এক দিন পরই শুরু হবে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক টেস্ট লড়াই। সাম্প্রতিক সময়ে টাইগাররা দুর্দান্ত ফর্মে থাকলেও এই সিরিজটি ক্রিকেটারদের জন্য বেশ কঠিন, বিশেষ করে ব্যাটসম্যানদের জন্য। দক্ষিণ আফ্রিকায় অনভ্যস্ত কন্ডিশনে ভালো করতে বেশ হিমশিম খেতে হতে পারে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের।

দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় ইনজুরির শিকার হয়েছিলেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। সম্প্রতি নেটে অনুশীলন করার সময় হালকা চোট পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও, যদিও তা গুরুতর কিছু নয়। তবে নেটের এমন লাফিয়ে ওঠা বলে ভয়ের কিছু দেখছেন না ইমরুল।

Also Read - শচীনের সাথে তুলনা তরুণ পৃথ্বীর!

সম্প্রতি সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বলেন, নেট আর ম্যাচের বোলিং এক রকম নয়। নেটের চেয়ে ম্যাচে বোলাররাও চাপে থাকে। ম্যাচের উইকেটেও এর চেয়ে ভালো থাকবে।

তবে উইকেট যে দেশের মতো স্বাচ্ছন্দেরও হবে না, ইমরুল স্বীকার করে নিলেন সেটিও। তবুও জানালেন, ভয়ের কিছু নেই এতে, তা তো অবশ্যই। এখানে বাউন্স থাকবে। আমাদের সেটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। প্র্যাকটিস ম্যাচে কিন্তু আমাদের প্রায় সব ব্যাটসম্যানই রান করেছে। তো, ওটা নিয়ে ভয়ের কিছু নেই।

প্রস্তুতি ম্যাচে রানে ফিরেছেন ইমরুল কায়েস। জানালেন, তাতে আত্মবিশ্বাস বেড়েছে তার। ৩০ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান বলেন, যেখানেই রান করি, কনফিডেন্স বাড়ে। সেটা বাংলাদেশে হোক কি এখানে। রান করলে নিজের কাছেও ভালো লাগে, কনফিডেন্স বাড়ে।

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে স্বাগতিক খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া একটি দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। পরিবেশের সাথে মানিয়ে নিতে দক্ষিণ আফ্রিকা পাড়ি জমিয়েছে একটু আগেভাগেই। সবকিছু মিলিয়ে প্রস্তুতি ভালো হয়েছে বলেই ধারণা ইমরুলের।

তিনি বলেন, প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। এখানে আমরা এক সপ্তাহ আগে এসেছি, একটা প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলেছি। প্র্যাকটিস ম্যাচ থেকে আমরা অনেক আত্মবিশ্বাসও পেয়েছি। সব মিলিয়ে প্রস্তুতি ভালো হয়েছে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম