সাকিবের ছুটি সম্পর্কে জানতেন না মুশফিক

0

দলের সেরা পারফর্মারকে ছাড়াই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। টেস্ট ক্রিকেটের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ছয় মাসের ছুটি চেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে।

তবে টেস্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম জানান সাকিব আল হাসানের ছুটি সম্পর্কে আগে জানতেন না তিনি। ঢাকা টেস্টের পরপরই বোর্ড প্রেসিডেন্টের কাছে আবেদন করেন সাকিব। তবে সেটা জানতেন কোচ কিংবা কাপ্তান কেউই।

Also Read - সমর্থকদের কাছে মুশফিকের অনুরোধ

মুশফিক বলেন, ‘সাকিব বোর্ড সভাপতিকে বলেছে, আমরা এখান সেখান থেকে শুনেছি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমি জানতাম না সে ছুটি ম্যানেজ করতে পেরেছে কি না।’

দুদকের শুভেচ্ছা দূত হচ্ছেন সাকিব

সাকিবকে ছাড়াই ভালো খেলার প্রত্যয় দেখা যায় ক্যাপ্টেনের কন্ঠে। তিনি বলেন, ‘সাকিবের খবর শোনার পরই আমি মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়ে নেই। তার মত খেলোয়াড়ের যোগ্য পরিবর্তন সম্ভব না। তবে ক্রিকেট ঐক্যের খেলা। আমরা একসাথে তাকে ছাড়া ভালো খেলার চেষ্টা করব।’

[আরো পড়ুনঃ শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্দেশ্যে উড়াল দেওয়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে আসেন মুশফিক। সেসময়ে এইসব কথা জানান মুশফিক। তিনি বলেন নেতিবাচক সমলোচনা না করে গঠনমূলক সমলোচনা করতে যাতে করে ক্রিকেটারদের উপর যেন বাড়তি চাপ না আসে।

তিনি বলেন, ‘দলে এখন যারা আছে, তাদের মানের ক্রিকেটার পেতে দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অনেক কঠিন জায়গা। আমাদের বছরে ৯ মাসই খেলার মধ্যে থাকতে হয়। তাই একটানা পারফর্ম করা ভীষণ কঠিন।’

তিনি আরো যোগ করেন, ‘সৌম্য-ইমরুলদের একটু খারাপ সময় যাচ্ছে। আপনাদের কাছে অনুরোধ, তাদের নিয়ে বিরূপ সমালোচনা করবেন না। তাদের ওপর যেন  চাপ না পড়ে, ক্যারিয়ার যেন শেষ না হয়ে যায়। সমালোচনা হতেই পারে, সেটা সমস্যা নয়। কিন্তু অযথা ওদের ওপর চাপ না দেওয়াই ভালো। ওরা যেন স্বস্তির সঙ্গে খেলতে পারে। ওরা পারফর্ম করতে না পারলে, দল থেকে ছিটকে পড়লে কিন্তু বাংলাদেশেরই ক্ষতি।’

\- রাইয়ান কবির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম