সাব্বিরের মাঝে কোহলির ছায়া খুঁজে পেলেন লায়ন

0

চট্টগ্রাম টেস্টে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বোলার নাথান লায়নের বোলিং তোপে প্রথম ইনিংসে কুপোকাত হয়ে দলীয় ১১৭ রানের মাঝেই টপ অর্ডারের পাঁচ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিক বাংলাদেশ। এরপর ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে মুশফিকের সাথে যোগ দিয়ে মূল্যবান ১০৫ রানের জুটি করে খাদের কিনারা থেকে দলকে টেনে তুলেন সাব্বির রহমান।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬৬ রান করার পথে শট খেলছেন সাব্বির।

মুশফিকের অর্ধশতকের ইনিংসের পাশাপাশি সাব্বির রহমান খেলেন টেস্ট ক্যারিয়ারে নিজের সেরা ৬৬ রানের ইনিংস। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আউট না হলে হয়তো আরো বড় করতে পারতেন ইনিংসকে। সাব্বির যখন দুর্ভাগ্যজনক স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ায় আফসোস করছেন ঠিক তখনই প্রতিপক্ষ দলের সবচেয়ে বোলারের কাছ থেকে দারুণ এক আখ্যা পেলেন।

Also Read - ৭৯ বছর পর শুরুতে স্পিন আনল অস্ট্রেলিয়া

দলের বিপর্যয় সত্বেও সাব্বির রহমানের নিজস্ব গতিতে ব্যাট করে যাওয়া ও রান সংগ্রহ করে প্রতিপক্ষের বোলারদের উপর চাপ সৃষ্টি করার সামর্থ্যে মুগ্ধ অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার নাথান লায়ন। দিন শেষে ম্যাচের পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে এসে তাই সাব্বিরের প্রশংসাই ঝড়লো অজি এই ক্রিকেটারের মুখ থেকে। প্রশংসায় ভাসালেন সাব্বির রহমানকে।

সাব্বির রহমানের মধ্যে ভারত ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির ছায়া দেখতে পেয়েছেন উল্লেখ করে সাংবাদিকদের নাথান লায়ন বলেন, ‘সে খুবই ভালো একজন খেলোয়াড়। তার মধ্যে আমি বিরাট কোহলির ছায়া দেখতে পাই। কোহলি উপমহাদেশে সম্ভবত রোল মডেল। তবে ক্রিজে সাব্বিরের হাঁটা, শট খেলার ধরনের মধ্যে কোহলির ছায়া পাওয়া যায়। আমরা দেখেছি সে খুব একটা রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করেনি। সে ম্যাচটিকে টেনে নিয়ে যেতে চেয়েছে। সাহসিক ক্রিকেট খেলেছে। সে খুবই ভালো ব্যাটিং করেছে। ভালো ভালো কিছু শট খেলেছে। সে অবশ্য বেশ ভাগ্যবানও।’

সেই সাথে প্রথম ইনিংসে সাব্বির রহমানের দুর্ভাগ্যজনকভাবে স্টাম্পড হয়ে যাওয়া নিয়েও মুখ খুলেন তিনি। সংবাদ সমেলনে তিনি বলেন, ‘অবশ্য ক্রিকেট খেলার ক্ষেত্রে ভাগ্যেরও মাঝে মাঝে সহায়তা লাগে। স্ট্যাম্পিংয়ের ক্ষেত্রে আমরাও ভাগ্যের সহায়তা পেয়েছি। যে বলে সে আউট হয়েছে সেটা সম্ভবত আমার করা সেরা বল নয়। আসলে ভাগ্যের সহায়তা পেয়েছি এবং বেশ উপভোগ করেছি বিষয়টা। তবে সে ভালো মানের একজন ক্রিকেটার। আমরা নিঃসন্দেহে তাকে সম্মান করি।’

সাব্বির রহমানকে কোহলির সাথে তুলনা করলেও মাটিতেই পা রাখছেন বাংলাদেশের মারকুটে এই ব্যাটসম্যান। তাঁর সম্পর্কে নাথান লায়নের এমন প্রশংসাসূচক আখ্যা শুনে এর প্রতি উত্তরে কোহলি ও লায়নের উপর সম্মান প্রদর্শন করে তিনি বলেন, ‘সে ৫ উইকেট পেয়েছে, অভিনন্দন। আর বিরাট কোহলির মতো ব্যাটসম্যান আমি এখনো হতে পারেনি। চেষ্টা করলে সবই সম্ভব। কোহলি কোহলির মতো। আমি আমার মতো। কোহলির সঙ্গে তুলনা বড় ব্যাপার নয়, নিজের খেলা যদি খেলতে পারি, দলে অবদান রাখতে পারি, সেটাই হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ।’