“স্টেইন-ফিল্যান্ডাররা না থাকায় বাংলাদেশ কিছুটা এগিয়ে থাকবে”

0

২৮ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট সিরিজ। এই সিরিজে খেলবেন না টেস্টের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। টেস্ট সিরিজে বিশ্রামে আছেন এই ক্রিকেটার। সাকিবের অনুপস্থিতি টাইগারদের ভোগাবে, তা বলাই যায়! অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্টে পাবে না এবি ডি ভিলিয়ার্সকে। এছাড়া ফিট না হওয়ায় খেলবেন না ডেল স্টেইন, এছাড়া ইনজুরিতে বাদ পড়েছেন পেসার ভার্নন ডেরিল ফিল্যান্ডার ও ক্রিস মরিস। যার ফলে কিছুটা পেস বোলিং সংকটে দক্ষিণ আফ্রিকা। অন্যদিকে বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম মনে করেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ক্রিকেটারদের না থাকায় আসন্ন সিরিজে টাইগারদের কিছুটা এগিয়ে রাখবে।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মুশফিক জানিয়েছেন, “আমি মনে করি দক্ষিণ আফ্রিকা এখনো গ্রেট দল কেননা তাদের দলে অনেক গ্রেট বোলার-ব্যাটসম্যান আছেন।”

Also Read - ট্যালেন্ট হান্ট নিয়ে রংপুর রাইডার্সের চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন

তবে স্টেইন, ফিল্যান্ডারদের না থাকায় কতোটা সুবিধা পাবে টাইগাররা? এই প্রসঙ্গে মুশফিক বলেন, “ক্রিকেট হলো দলগত খেলা এবং এখনো তাদের (দক্ষিণ আফ্রিকা) সামঞ্জস্যপূর্ণ স্কোয়াড আছে। তবে স্টেইন, ফিল্যান্ডাররা না থাকায় আমাদের কিছুটা এগিয়ে রাখবে। দক্ষিণ আফ্রিকার পরিবেশে ওদের সাথে খেলা কখনোই সহজ নয়। তবে আমাদের সামনে দেশের বাইরে ভালো করার সুযোগ।”  

দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলা সবসময় কঠিন। যে কোনও দলকেই দক্ষিণ আফ্রিকার পিচে খাবি খেতে হয়। তবে গত আড়াই বছরে টাইগারদের পারফরম্যান্সের কথা ভেবে ভালো করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক। মুশফিক বলেন, “দক্ষিণ আফ্রিকায় যারাই খেলে তাদের অনেক কঠিন সময় পার করতে হয়। পেসারদের আমরা কিভাবে মোকাবেলা করছি, এটাই হবে টেস্ট সিরিজের মুখ্য। দল হিসেবে আমরা খুব বেশি বাইরে টেস্ট খেলি নি তবে গত আড়াই বছরে আমরা দল হিসেবে অনেক উন্নতি করেছি।”

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টাইগারদের মূল লড়াই শুরু হবে ২৮ সেপ্টেম্বর। টেস্ট ম্যাচ দিয়েই টাইগারদের সফর শুরু হবে।