৩২০ রানে থামল বাংলাদেশ

Share Button

পচেফস্ট্রুম টেস্টে প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার করা ৪৯৬ রানের জবাবে ৩২০ রানে থেমেছে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস।

BanvSa

দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে ৩ উইকেটে করা ১২৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিন সকালে খেলতে নামে সফরকারী বাংলাদেশ। দিনের শুরুতেই তামিম ফিরে যান ৩৯ রান করে। এরপর দলের হাল ধরেন মুমিনুল হক ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

Also Read - বৃষ্টিতে ভেসে গেলো যুবাদের ম্যাচ

মুমিনুল ও মাহমুদউল্লাহ দুজনই তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। দুজনের ব্যাটে ভর করে বাংলাদেশের ইনিংস এগোচ্ছিলও বেশ ভালোভাবে।

তবে হাফ সেঞ্চুরির পর উইকেটে থিতু হতে পারেননি মুমিনুল বা মাহমুদউল্লাহ্‌র কেউই। মুমিনুল ৭৭ এবং মাহমুদউল্লাহ ৬৬ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন।

শেষ দিকে রানের চাকা সচল রাখার চেষ্টা করেছিলেন সাব্বির রহমান। তবে কারও যোগ্য সঙ্গ না পাওয়ায় আর নিজের ইনিংস ৩০ রানে আটকে যাওয়ায় ফলো-অন এড়ানো ছাড়া বেশি কিছু করতে পারেনি বাংলাদেশ।

শেষমেশ ৮৯.১ ওভার ব্যাট করে ৩২০ রানেই থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের পক্ষে কেশব মহারাজ তিনটি এবং কাগিসো রাবাদা ও মরনে মরকেল দুটি করে উইকেট শিকার করেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে যেকোনো ফরম্যাটে এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। এর আগের ইনিংসটি ছিল ২৫২ রানের, ২০০২ সালে ইস্ট লন্ডন টেস্টে, নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে।

বাংলাদেশ অলআউট হওয়ার পর নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেছে ১৭৬ রানের লিডধারী দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দলটির সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৩০ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (তৃতীয় দিনের তৃতীয় সেশন)

দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৯৬/৩, (প্রথম ইনিংস) ডিক্লেয়ার্ড
এলগার ১৯৯, আমলা ১৩৭, মারক্রাম ৯৭
শফিউল ১/৭৪, মুস্তাফিজুর ১/৯৮

বাংলাদেশ ৩২০/১০ (প্রথম ইনিংস)

মুমিনুল ৭৭, মাহমুদউল্লাহ ৬৬, মুশফিক ৪৪, তামিম ৩৯, লিটন ২৫, সাব্বির ২০
মহারাজ ৩/৯২, মরকেল ২/৫১, রাবাদা ২/৮৪

দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০/০ (দ্বিতীয় ইনিংস)
এলগার ১৮, মারক্শরাম ১২

দক্ষিণ আফ্রিকার লিড ২০৬ রানের।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম