SCORE

Trending Now

‘এখনও অনেক দূর যাওয়া বাকি’

Share Button

আগামী ৩১শে অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে বিসিবির নির্বাচন। এদিকে মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) ছিল বিসিবির বর্তমান কমিটির মেয়াদের শেষদিন। সভাপতি হিসেবে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের সামনে রাখেন বিদায়ী বক্তব্য।

পাপন বলেন, ‘মূল ব্যাপার ছিল দলীয় শৃঙ্খলা। আমার কাছে মনে হয়েছে আমাদের দেশে অনেক ট্যালেন্ট প্লেয়ার আছে। এই ট্যালেন্টগুলোকে ঠিকমতো খেলাতে হবে। টিম ওয়ার্কের অভাব ছিল। আমি আসার আগে সবাই ইন্ডিভিজুয়ালি পারফর্ম করতো। আশরাফুল থেকে শুরু করে সবাই ভালো খেলতো। ওরা পারফর্ম করলে জিততাম, না হলে জিততাম না। কিন্তু টিম ওয়ার্কের অভাব ছিল। তাই এই টিম ওয়ার্ককে ম্যানেজ করে যতটুকু পারা যায়, মানে একটা সিস্টেমের মধ্যে আনা যায় সেটা একটা চ্যালেঞ্জ ছিল।’

Also Read - কক্সবাজারে 'এ' দলের ম্যাচে বৃষ্টি-বাধা

পাপনের আমলে ক্রিকেট অঙ্গনে কীসব পরিবর্তন এসেছে সে বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি যখন আসি তখন বিশ্বকাপ বাংলাদেশে হবে কী না এটা একটা মেজর ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তখন যে পরিস্থিতি ছিল তাতে আইসিসি’র সাথে আলাপ আলোচনাই চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আমি যখন আসি তখন আইসিসি থেকে বাংলাদেশকে বাদ দেয়ার আলাপ আলোচনা চলছিলো। কেননা সেই সময় এক বছর বাংলাদেশের পারফরম্যান্স খুবই খারাপ যাচ্ছিলো। আবার ফুল মেম্বারশীপ থেকে নেমে যাওয়ার ইস্যুও ছিল। এইগুলোই মূলত কঠিন ছিলো।’

একসময় আইসিসির ইভেন্টগুলো আয়োজন করা বাংলাদেশের জন্য কঠিন হয়ে পড়েছিল জানিয়ে বিদায়ী বোর্ড সভাপতি বলেন, ‘আইসিসিতে ওদের ম্যানেজ করা এবং আইসিসি’র ইভেন্টসগুলো বাংলাদেশে আনা ভীষণ চ্যালেঞ্জিং ছিল। কেননা তখন বাংলাদেশের রাজনৈতিক অবস্থা খারাপ থাকায় নিরাপত্তাজনিত ইস্যুতে কিছু দেশ আসতে চাচ্ছিলো না। অস্ট্রেলিয়া প্রথম দফায় আসলোই না। তারপরে ইংল্যান্ডকে আনাও ছিল চ্যালেঞ্জিং। ইস্যুগুলোর মধ্যে একটা চ্যালেঞ্জ ছিল, যেমন ভারতে সিরিজ খেলা।’

তার আমলে বাংলাদেশের মিশ্র পারফরমেন্সের মধ্যেও ওয়ানডেতে ভালো খেলার কথা স্বীকার করে নেন তিনি- ‘টিম ভালো খেলেছে, এটা অস্বীকার করার কোনো পথ নেই। আবার খারাপও খেলেছে। তবে ওয়ানডেতে আমরা খুব ভালো খেলেছি। বিশ্বকাপে আমরা কোয়ার্টার ফাইনালে গেলাম। ভারতকে হারানো, আগে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে আমরা কোয়ালিফাই করি না; সেই জায়গায় সরাসরি গিয়েই সেমিফাইনালে যাওয়া এগুলোই মাইলস্টোন। দেশের মাটিতে আমরা অনেক ভালো খেলেছি।’

পাপন বলেন, ‘প্রথমবার পাকিস্তানের সাথে আমরা সিরিজ জিতেছি। এটা তো একটা বিরাট ব্যাপার। ভারত, সাউথ আফ্রিকার সাথে সিরিজ জিতেছি। এটা তো আগে অকল্পনীয় ছিলো, যে আমরা সিরিজ জিতবো, হঠাৎ একটা ম্যাচ জিততাম কিন্তু কখনো সিরিজ জিতিনি।’

তবে পথচলা এখানেই শেষ নয় জানিয়ে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘এখনও অনেক দূর যাওয়া বাকি। দেশের মাটিতে যত ভালো খেলি বাইরে কিন্তু অত ভালো খেলি বলা যাবে না। সাউথ আফ্রিকায় যে কন্ডিশন দেখছেন, এইখানটায় কিন্তু আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। এখানে উন্নতির অনেক জায়গা আছে, অনেক কিছু শেখার আছে। আমরা একটা জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছি, বাংলাদেশকে একটা জায়গায় নিয়ে যেতে পেরেছি। ওটাকে ধরে রাখাটাও একটা চ্যালেঞ্জ হবে।’

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

এবার বিসিবির নজর কারস্টেনের দিকে

শ্রীলঙ্কা সিরিজে থাকছেন না কোনো হেড কোচ

ওয়ানডেতে মাশরাফিতেই আস্থা

‘একজন ক্রিকেটারের চেয়ে দেশ অনেক বড়’

সাকিবের অনুপস্থিতি মানতে পারেননি হাথুরু