SCORE

Breaking News

কোচের সাথে দ্বন্দ্ব মিডিয়ার সৃষ্টি!

Share Button

ইনজুরির কারণে তামিম ইকবালের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষ টি-২০ সিরিজ শুরুর আগেই। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে গিয়ে ইনজুরির শিকার হওয়া বাঁহাতি ওপেনার খেলতে পারেননি বেশিরভাগ ম্যাচ। মঙ্গলবার দেশে ফিরে আসেন দেশসেরা এই ব্যাটসম্যান। দেশে ফিরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি।  [আরও পড়ুন:মুস্তাফিজ সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন ওয়াকার ইউনুস]

কোচের সাথে দ্বন্দ্ব মিডিয়ার সৃষ্টি!

প্রথম ওয়ানডের সময় এমন একটি খবর চাউর হয়েছিল- কোচের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে খেলেননি তামিম। এমনকি ম্যাচের আগে অনুশীলনে নাকি কোচের উপর রাগ ঝেড়ে ব্যাটও ছুঁড়ে মেরেছিলেন। তবে দেশে ফিরে তামিম জানালেন, বিষয়টি হাস্যকর এবং সম্পূর্ণ মিথ্যা। তাঁর কথায় কিছুটা ক্ষোভও ঝরল মিডিয়ার উপর।

Also Read - বিয়ে করতে যাচ্ছেন কোহলি-আনুশকা

তামিম বলেন, ‘পুরো ব্যাপারটি আমার কাছে হাস্যকর মনে হচ্ছে। এগুলো মিডিয়ার তৈরি। কোনো বিষয় ঘটলে সেটার ৫ শতাংশকে মানুষ ২৫-৩০ শতাংশ বানিয়ে দেয়। এটা হলেও হতো। কিন্তু যে ঘটনাটির কথা বলা হচ্ছে সেটা তো ঘটেইনি। ঘটেছে শূন্য শতাংশ। আমার এই খবরে হাসা ছাড়া কোনো কিছু করার নেই।’

এদিকে দলের ব্যর্থতার কারণে কন্ডিশনের উপর দায় চাপাতে রাজী নন তামিম। তিনি বলেন, কন্ডিশন কঠিন, এটা আমরা সবাই জানতাম। কিন্ত কন্ডিশনকে দোষ দিয়ে বা আমরা ওখানে অনেক দিন যাইনি, এটা অজুহাত হিসেবে দেখাতে চাই না। আমার কাছে মনে হয় ব্যক্তিগতভাবে ও দল হিসেবে আমরা যতটা সক্ষম, ততটা খেলেতে পারিনি। কন্ডিশন একটু ভিন্ন, একটু চ্যালেঞ্জিং ছিল অবশ্যই। কিন্ত আমরা এর চেয়ে ভালো পারফর্ম করতে পারতাম।

ভুল থেকে সংশোধনের জায়গা খেলোয়াড়েরা ধরতে পেরেছেন বলে দাবি তামিমের। বাঁহাতি ওপেনার বলেন, আমরা সবাই জানি, আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী কেউ পারফর্ম করতে পারিনি। আমাদের জন্য বড় শিক্ষণীয় সফর ছিল। আমাদের ঘাটতি যা ছিল, আমি নিশ্চিত যে, ব্যাটসম্যান বা বোলার বলেন, কিংবা দল হিসেবে, সবাই কম-বেশি বুঝতে পেরেছি।

বাজে স্মৃতির দোহাই দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর ভুলতে চান না তামিম। বরং উন্নতির জায়গাগুলোতে শতভাগ ঢেলে দেওয়ার প্রত্যয় তাঁর, আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূণ যেটা মনে হয়, এই যে একটা বাজে সফর হলো বা প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে পারিনি, এটি ভুলে গেলে হবে না। এই জিনিস মাথায় রেখে কাজ করতে হবে। এটিকে বাজে সফর হিসেবে চিন্তা করে যদি ভুলে যাই, তাহলে কিন্তু আমরা উন্নতি করব না। এখানে কী ঘাটতি ছিল, সেসব খুঁজে বের করতে হবে। তারপর সেটার ওপর পরিকল্পনা করে এগোতে হবে। ২০১৯ বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডে হবে। সেখানে খেলাও কঠিন আমাদের জন্য। এই সব কিছু মাথায় রেখে এগোতে হবে। ব্যক্তিগতভাবে বলেন বা দল হিসেবে, যেসব সমস্যা আমরা অনুভব করেছি দক্ষিণ আফ্রিকায়, যেখানে উন্নতি করা দরকার, তা করতে হবে। যদি তা না করি, তাহলে দল এগোবে না।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

এসএলসির সাথে আলোচনা সম্পন্ন করেছেন হাথুরুসিংহে

হাথুরুসিংহে প্রসঙ্গে এখনও দ্বিধায় বিসিবি

অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হতেও প্রস্তুত সুজন

হাথুরুসিংহেকে পেতে মরিয়া লঙ্কানরা

হাথুরুসিংহেকে ‘ক্রিকেট গিয়ার্স’ আনতে বলেছিলেন ইমরুল!