SCORE

Breaking News

চার শতকে ৫৭৩ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা প্রোটিয়াদের

Share Button

সফরকারী বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারণী দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেটের বিনিময়ে স্কোরবোর্ডে ৫৭৩ রান যোগ করার পর ইনিংস ঘোষণা করেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় দিনেও অপ্রতিরোধ্য আমলা-ডু প্লেসিস

৩ উইকেটে ৫৩০ রান নিয়ে লাঞ্চ ব্রেক থেকে ফিরেই আমলার উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। এরপর ডু প্লেসিস ও কুইন্টন ডি কক দ্রুতগতিতে রান তুলে তাঁদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। প্রথম ইনিংস শেষে ডু প্লেসিস ১৩৫ ও ডি কক ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন।

Also Read - বৃষ্টি বাধায় দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুতে বিলম্ব

এর আগে বৃষ্টি বাগড়ায় নির্ধারিত সময়ের ৯০ মিনিট পর থেকে মাঠে গড়িয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা বাংলাদেশের মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনের খেলা। দিনের খেলা দেরিতে শুরু হলেও যেভাবে প্রথম দিন শেষ করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা ঠিক সেভাবেই দ্বিতীয় দিন শুরু করেন আমলা-ডু প্লেসিসরা। সফরকারী বোলারদের বিপক্ষে দাপুটে ব্যাট করে এদিন আমলার পর শতক তুলে নেন অধিনায়ক ডু প্লেসিসও।

এরপর এই দুই ব্যাটসম্যানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষে স্কোরবোর্ডে বড় পুঁজি নিয়ে লাঞ্চ ব্রেকে যায় প্রোটিয়ারা।

উল্লেখ্য, পচেফস্ট্রুম টেস্টের মতো ব্লুমফন্টেইনেই টস জিতে স্বাগতিকদের আগে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান সফরকারী দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। তবে অধিনায়কের সিদ্ধান্ত সঠিক প্রমাণ করতে ব্যর্থ হন সফরকারী দলের বোলাররা। প্রোটিয়া দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডিন এলগার ও এইডেন মারক্রামের দাপুটে ব্যাটিংয়ের সামনে ম্যাচের শুরু থেকেই বাংলাদেশের বোলারদের ছন্দছাড়া মনে হতে থাকে।

আক্রমণাত্বক ব্যাটিংয়ের সাথে বলের মেধা বিচার করে খেলার পথে উভয় ব্যাটসম্যান উদ্বোধনী জুটিতে শতকের দেখা পান। এলগার ক্যারিয়ারের দশম শতক পূর্ণ করেন বাদ যাননি মারক্রামও। পচেফস্ট্রুমে শতক থেকে তিন রান দূরে থেকে রান আউটের ফাঁদে কাটা পড়লেও এবার আর কোন ভূল না করে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক তুলে নেন তিনি।

উদ্বোধনী জুটিতে ২৪৩ যোগ করে ইনিংসের ৫৪তম ওভারের চতুর্থ বলে শুভাশিষকে পুল করে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মুস্তাফিজের বিচক্ষণ ফিল্ডিংয়ে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন ১১৩ রান করা এলগার। এরপর সঙ্গীকে হারিয়ে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মারক্রামও। রুবেলের দারুণ এক রিভার্স সুইংয়ে দলীয় ২৭৬ রানে আউট হল তিনি ক্যারিয়ার সেরা ১৪৩ রানের ইনিংস খেলে।

উদ্বোধনী দুই ব্যাটসম্যানের সাজঘরে ফিরে যাওয়ার পর দলীয় ২৯০ রানের সময় শুভাশিষের দ্বিতীয় শিকার হয়ে আউট হন টেম্বা বাভুমা। দ্রুততম সময়ে তিন উইকেট হারালেও এরপর দলের বিপর্যয় আর বাড়তে দেননি প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস ও হাশিম আমলা। অবিচ্ছিন্ন ১৩৮ রানের জুটি গড়ে ৩ উইকেটের বিনিময়ে স্কোরবোর্ডে ৪২৮ রান তুলে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড-

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ৫৭৩/৪ ডিক্লেয়ার
মারক্রাম ১৪৩, ডু প্লেসিস ১৩৫*, আমলা ১৩২, এলগার ১১৩, ডি কক ২৮*; শুভাশিষ ১১৮/৩, রুবেল ১১৩/১

Related Articles

টি-২০ তে দ্রুততম শতকের মালিক হলেন মিলার

এবারও হোয়াইটওয়াশে চোখ প্রোটিয়াদের

ইনজুরির কারণে টি-২০ সিরিজে নেই ডু প্লেসিস

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

ভিলিয়ার্সই হারালেন বাংলাদেশকে