তামিমের আশা ছাড়ছে না টিম ম্যানেজম্যান্ট

0

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে থাই ইঞ্জুরির জন্য ২য় টেস্ট খেলা হচ্ছে না তামিম ইকবাল এর এ খবরটা পুরনো। তবে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালের জন্য শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চায় টিম ম্যানেজম্যান্ট। [ইংরেজিতে পড়ুনঃ তামিমকে নিয়ে আশাবাদী টিম ম্যানেজমেন্ট]

প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেই তামিম

বেনোনিতে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় বাম পায়ের উরুতে চোট পান তামিম ইকবাল। এরপর আর তিনদিনের ম্যাচে মাঠে নামেন নি তামিম ইকবাল। তবে ব্যাথা বেশি না হওয়ায় প্রথম টেস্ট খেলতে নামেন তামিম।

Also Read - এ দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্বে শান্ত

দ্বিতীয় দিন বিকেলের দিকে মাঠ ছাড়েন তামিম ইকবাল আর ঠিক তখনই ইনিংস ঘোষণা করেন আফ্রিকান অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। তাই ওপেনিং করতে আর মাঠে নামা হয়নি চট্টলার এই ওপেনারের। পাঁচ নম্বরে ব্যাটিং করতে নামেন তিনি। তাঁর ব্যাট থেকে আসে ৩৯ রান। ২য় ইনিংসে ওপেনিং করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই মরনে মরকেল এর বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান দারুণ ফর্মে থাকা তামিম।

পচেফস্ট্রুমে তাঁর একটি স্ক্যান করানো হয় এবং ব্লুমফন্টেইনেও তাঁর আরেকটি স্ক্যান করানো হয়। এরপরই তাকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তবে বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক ও বর্তমানে ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করা মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছেন তামিম ইকবালের জন্য শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করবে টিম ম্যানেজম্যান্ট।

তিনি বুধবার বলেন, ‘আমরা এখনও তামিমের আশায় আছি। তামিমের জন্য আমরা শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করব।’

এ ধরনের ইঞ্জুরি থেকে সেরে উঠতে চার সপ্তাহের মত সময় লাগে। তবে তামিম ইকবাল দশ থেকে বারো দিন বিশ্রাম নিলেই আসন্ন ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে। ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে অক্টোবরের পনের তারিখ থেকে। ২য় টেস্ট শুরু হবে ৬ই অক্টোবর থেকে।

উল্লেখ্য, প্রথম টেস্টে ৩৩৩ রানে হেরে সিরিজে ১-০ তে পিছিয়ে আছে টাইগাররা। ২য় টেস্টে যদি তামিম না খেলেন তবে সেটা বড় চাপ হবে বাংলাদেশের জন্য। এ টেস্ট সিরিজে খেলছেন না সাকিব আল হাসানও। চার বছর পর সাকিব তামিম দুজনকে ছাড়া টেস্ট খেলতে নামবে মুশি বাহিনী। আর ২য় টেস্ট হারলে ধবল ধোলাই এর লজ্জা সঙ্গী হবে সফরকারীদের।

  • রাইয়ান কবির, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম