SCORE

দলের সাথে থেকেও বিস্মিত নান্নু

Share Button

দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্টে টাইগারদের পারফরম্যান্স নিয়ে অনেক সমালোচনা হচ্ছে। তার সাথে যুক্ত হয়েছে খেলার ভঙ্গি নিয়েও। টাইগারদের সাথে ম্যানেজার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার ও সাবেক অধিনায়ক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। টেস্ট সিরিজে টাইগারদের ভঙ্গি দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন তিনি।  [আরো পড়ুনঃ ক্রিকেটারদের সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন বোর্ড সভাপতির]

শুধুমাত্র দ্বিতীয় টেস্টে তিন বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানের হেলমেটে বল লেগেছিল। এই প্রসঙ্গে নান্নু বলেন, “আমি বলবো মনোযোগের ঘাটতির জন্য এমন হয়েছে। মনসংযোগ নড়ে না গেলে বল থেকে চোখ সরবে না। খেলার সময় তো বটেই ছাড়ার সময়ও শেষ পর্যন্ত বলে চোখ রাখতে হয়। বলে ওদের চোখ ছিল না। এটার আরেকটা কারণ হতে পারে, ওরা আগেই ঠিক করে রেখেছিল এই বল খেলব না।” 

Also Read - 'ম্যান অব দা ম্যাচ' হলেন আশরাফুল

দুই টেস্টের চার ইনিংসের মধ্যে তিন ইনিংসেই ২০০ এর গন্ডি পেরুতে পারে নি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। এমন লজ্জাজনক ব্যাটিং প্রদর্শনের কারণ কি? এই প্রশ্নে নান্নু বলেন, “আমার মনে হয়েছে, ওরা প্রতিটি বল খেলতে চেয়েছে। টেস্টে তো বল ছাড়াটা শিখতে হবে। ব্যাটসম্যানদের উচ্চতাও বেশি না। ওরা যখন শর্ট বল শক্ত হাতে খেলেছে সেটা লাফিয়ে উঠেছে। ওদের কাছ থেকে আরও ভালো টেকনিক আশা করেছিলাম।”

ভিন্ন কন্ডিশনে শুরু থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা চাপে ছিলেন। নান্নুর এই বিষয়ে সহজ স্বীকারোক্তি। তবে সেই চাপ কাটিয়ে উঠতে না পারায় হতাশা প্রকাশ করেছেন এই সাবেক বাংলাদেশ ক্রিকেটার। তিনি বলেন, “আমরা জানতাম ওরা খুব চাপে আছে। আমাদের দায়িত্ব ছিল এটা নিশ্চিত করা, ওরা যেন চাপটা কাটিয়ে উঠতে না পারে। ওদের আমরা কোনো জায়গা দেইনি। ওরা প্রচুর শট খেলে তাই বোলাররা জানত, সুযোগ আসবেই। আমরা সুযোগগুলো কাজে লাগাতে উন্মুখ ছিলাম।” 

উল্লেখ্য, টেস্টের লজ্জাজনক ফলাফলের পর একদিনের সিরিজের দিকে তাকিয়ে আছে বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে একদিনের স্কোয়াডের ক্রিকেটাররা পৌঁছে গেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৫ অক্টোবর কিম্বার্লিতে শুরু হবে একদিনের সিরিজ। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ ১৮ অক্টোবর ও ২২ অক্টোবর। বাংলাদেশ সময় দুপুর দুইটায় শুরু হবে এই ওয়ানডে সিরিজের ম্যাচগুলো।

 

Related Articles

টাইগারদের পাশেই আছেন নান্নু

কোচের কাছে ব্যর্থতার কারণ জানতে চাইবেন পাপন

নীরবেই দেশে ফিরল টাইগাররা

‘হাথুরুসিংহেকে ক্ষমতা দেওয়াই বুমেরাং হচ্ছে’

‘পেস বোলিং এ পিছিয়ে যাচ্ছি’ – সুজন