SCORE

Breaking News

ব্যাটসম্যানদের নিয়ে অভিযোগ নেই তামিমের

Share Button

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে বাংলাদেশ নেই পুরনো রূপে। শ্রীলঙ্কা সিরিজ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি কিংবা অস্ট্রেলিয়া সিরিজের সেই আক্রমণাত্মক বাংলাদেশ দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে উধাও। এর পেছনে হয়ত বড় প্রভাব রাখছেন সেখানকার অপরিচিত কন্ডিশন এবং ঐ কন্ডিশনে খেলার অনভ্যস্ততা।

এখন পর্যন্ত দুটি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে ম্যাচ মাঠে গড়ালেও বারবারই হতাশ করেছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ওয়ানডেতে সম্মানজনক সংগ্রহ পেলেও ম্যাচের প্রেক্ষাপট ও উইকেট বিবেচনায় তা ছিল ছোটখাটো একটা সংগ্রহ। যার কারণে হারও জুটেছে বড় ব্যবধানে। সব মিলিয়ে চলমান সফরে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং অর্ডার ক্রিকেট-সংশ্লিষ্টদের ফেলেছে অনেক দুশ্চিন্তায়।

Also Read - 'এটাই আমার শেষ খেলা না'

মঙ্গলবার দ্বিতীয় ওয়ানডে পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হিসেবে আসেন তামিম ইকবাল। এ সময় তিনি জানান ব্যাট হাতে ভালো করার মন্ত্র। সেক্ষেত্রে ছোট ইনিংসগুলোকে বড় করার তাগিদ দিলেন তিনি।

তামিম বলেন, ‘যদি ২০-৩০ রানের ইনিংসগুলো আমরা ৬০-৭০ করতে পারি, সাথে যদি একজন ৮০-১০০ করে, তাহলে আমাদের রানটা অনেক বড় হয়ে যাবে। একই সঙ্গে আমরা খেলোয়াড়রাও শিখব, এই কন্ডিশনে কিভাবে রান করতে হয়। যদি এভাবে হয় তাহলে খুব ভালো।’

ছোট স্কোর দলের জন্য যথেষ্ট নয় জানিয়ে বাঁহাতি এই ওপেনার জানান, ‘ব্যাটসম্যানদের সবার নিজের খেলা নিয়েও চিন্তা করা উচিত। ২০-৩০ নিজের জন্য যথেষ্ট নয়, দলের জন্য যথেষ্ট নয়। বড় স্কোর গড়তে হবে।

তবে দলের দুঃসময়েও সতীর্থদের নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই সিনিয়র এই ক্রিকেটারের। তামিম জানান, অনুশীলনে পরিশ্রমের কমতি রাখছেন না ব্যাটসম্যানরা।

বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ওপেনার বলেন, ‘ওদের ওয়ার্ক এথিক্স, ওরা যেভাবে অনুশীলনে পরিশ্রম করছে, তা নিয়ে সতীর্থ হিসেবে আমি কোনো অভিযোগ করতে পারি না। ওরা খুব ভালো করছে, অনুশীলনে যতটা সম্ভব পরিশ্রম করছে। একটু ভাগ্যের সহায়তা লাগবে, আর একটু স্মার্ট হতে হবে।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

ইনজুরির কারণে টি-২০ সিরিজে নেই ডু প্লেসিস

প্রোটিয়াদের মুখে খুশির ঝিলিক

সাকিবে ভরসা মাশরাফির

‘দেশের ক্রিকেটের জন্য বিপদসংকেত’

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে বাংলাদেশের লক্ষ্য ৩৭০