SCORE

Trending Now

মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ২৭৯ রানের টার্গেট ছুড়ে দিলো বাংলাদেশ

Share Button

টেস্ট পর্ব শেষে ওয়ানডে মিশনে নেমেছে বাংলাদেশ দল। কিম্বার্লির ডায়মন্ড ওভালে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। চোটের কারণে দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে না পারা ওপেনার তামিম ইকবাল খেলেননি প্রথম ওয়ানডেতেও।

মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ২৭৯ রানের টার্গেট ছুড়ে দিলো বাংলাদেশ

তামিমের অনুপস্থিতে দলের হয়ে ওপেনিং করেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাস, তার সঙ্গী হিসেবে খেলেছেন ইমরুল কায়েস। লিটন-কায়েসে শুরুটা দারুণ করেছিলো বাংলাদেশ দল। কায়েস ধীর গতিতে খেললেও রানের চাকা সচল রেখেছিলেন লিটন দাস।

Also Read - অনন্য উচ্চতায় সাকিব আল হাসান

তবে দলীয় ৪৩ রানের মাথায় পেসার রাবাদার বলে স্লিপে ডু প্লেসিসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন লিটন (২১)। বিশ্রাম কাটিয়ে ওয়ানডে দলে ফিরেন সাকিব আল হাসান। দলে ফিরেই নতুন কীর্তি গড়েন এই বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার। অফ-ফর্মে থাকা কায়েস বড় ইনিংসের স্বপ্ন দেখালেও থেমে যান ৩১ রানেই।

টেস্টে ব্যাট না হাসলেও ওয়ানডেতে শুরু থেকেই ভালো করার আশ্বাস দিয়েছিল মুশফিকের ব্যাট। সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে ৫৯ রানের জুটি গড়েন মুশফিকুর রহিম। ব্যক্তিগত ২৯ রান করেই তাহিরের বলে বিদায় নেন সাকিব। তার বিদায়ের পর অল্প রানে আউট হওয়ার সম্ভবনা থাকলেও একাই দলের হাল ধরেন মুশফিক।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গে নিয়ে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান মুশফিক। তবে ব্যক্তিগত ২৬ রানে পেসার প্রেটোরিয়াসের বলে আউট হন রিয়াদ। তার বিদায়ের পর দলের রানের চাকা একাই সচল রাখেন দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান মুশফিক।

শুরুর দিকে সাব্বিরের ঝড়ের গতিতে রান তুলাতে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ কিন্তু ব্যক্তিগত ১৯ রানেই বিদায় নেন তিনি। সাব্বিরের বিদায়ের পর প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেঞ্চুরি তুলে নেন মুশফিকুর রহিম।

এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ছিল সৌম্য সরকারের। ২০১৫ সালে ৯০ রান করেছিলেন সৌম্য। মুশফিকের এই সেঞ্চুরিতে ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মুশফিক। শেষ পর্যন্ত মুশফিকের অপরাজিত ১১০ এবং শেষদিকে তরুণ সাইফউদ্দিনের অপরাজিত ১৬ রানে ২৭৮ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১০ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট তুলে নেন রাবাদা এবং দুইটি উইকেট লাভ করেন পেসার প্রেটোরিয়াস।

স্কোরকার্ডঃ

বাংলাদেশ ২৭৮/৭ (ওভার ৫০)

মুশফিক ১১০*, কায়েস ৩১ঃ রাবাদা ৪-৪৩

Related Articles

ভারত, নেপালের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ

‘আমার আজেবাজে জিদ নেই’

‘চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলেছি’

কুমিল্লাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ বিসিবির

পাইবাসকে চান না মুশফিক-সাকিব-মাশরাফি