লাহোরের ম্যাচ নিয়ে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটে ঝড়

Share Button

২০০৯ সালে পাকিস্তান সফরত শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের উপর ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর দীর্ঘদিন ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত ছিল পাকিস্তান। সম্প্রতি আইসিসির মধ্যস্থতায় দেশটিতে ক্রিকেট ফিরলেও পাকিস্তানে ক্রিকেট আতঙ্ক যেন কাটছেই না। কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশই পাকিস্তান সফরে যেতে রাজী হচ্ছে না। তবে এমন সময়ে বিপত্তি বাঁধিয়েছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। বিপত্তিটা অবশ্য দলটির খেলোয়াড়দের জন্য।

pakvssl

চলমান পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের পর শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান মুখোমুখি হবে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে। ঐ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে। আগের স্মৃতি যখন দগদগে ঘা হয়ে কাজ করছে লঙ্কানদের মনে, তখন পাকিস্তানেই আবার সফরে যাওয়ার সাহস না করাটা অতি স্বাভাবিক। তবে ব্যাপারটি মেনে নিতে পারছে না শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)। পাকিস্তান সফরে যেতে খেলোয়াড়দের রীতিমতো চাপ প্রয়োগ করছে সংস্থাটি।

Also Read - যুবাদের গড়ে তুলতে বাংলাদেশে মানহাস

এসএলসির পক্ষ থেকে সম্প্রতি বলা হয়েছে, লাহোরে খেলতে সম্মত না হলে সম্পূর্ণ নতুন একটি দল নিয়েও মাঠে নামতে পারে শ্রীলঙ্কা। তবুও লাহোরের সফর বাতিল বা ট্রান্সফার করা হবে না। এতে বিপাকে পড়েছেন অনেক সিনিয়র খেলোয়াড়ই। সিনিয়র খেলোয়াড়দের বেশিরভাগই পাকিস্তানে খেলতে যেতে অপারগ।

সম্প্রতি বলা হয়েছে, লাহোরের ম্যাচে খেলতে রাজী না হলে সিরিজ থেকেই বাদ দেওয়া হবে! সেক্ষেত্রে সম্পূর্ণ নতুন একটি দল মাঠে নামা বাস্তব রূপ নিতে পারে।

শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক গ্রাহাম লাবরয় এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘বোঝা যাচ্ছে যে সিরিজটিতে আমরা একটি স্কোয়াডই পছন্দ করবো, খেলোয়াড়দের প্রতি সুবিচার করার জন্য যারা লাহোর ম্যাচের জন্য হাত তুলেছে। যাই হোক, নির্বাচকদের তুলনায় এই সিদ্ধান্তটা এসেছে বোর্ড ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে।’

শ্রীলঙ্কার টি-২০ অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা লাহোরে খেলার ব্যাপারে নিজের অসম্মতির কথা জানিয়েছেন ইতোমধ্যেই। সেই হিসেবে থারাঙ্গা বাদ পড়ছেন পুরো টি-২০ সিরিজ থেকেই, যে সিরিজে নেতৃত্ব দিতে হবে নতুন কোনো অধিনায়ককে।

গ্রাহাম লাবরয় বলেন, মুহূর্তে প্রত্যেক খেলোয়াড়ের সঙ্গে আলাদাভাবে কথা বলছে বোর্ড তাই নির্বাচকরা ঠিক জানেন না কারা স্কোয়াডে থাকছেন কিন্তু শুক্রবার (২০ অক্টোবর) সকালের মধ্যে তা আমাদের জানতে হবে এসএলসির নির্বাহী কমিটির দুজন সদস্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম