শচীন এবার কমিক বুকে

Share Button

সর্বকালের সর্বসেরা ক্রিকেটার কি না, এ নিয়ে বিতর্ক হতে পারে। তবে সর্বকালের অন্যতম সেরা এবং সেরা দুজনের যে একজন (অন্যজন ডন ব্র্যাডম্যান), এটি সন্দেহাতীত। দীর্ঘ ২৪ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শচীনকে যেমন ক্রিকেট দিয়েছে দুহাত ভরে, তেমনি শচীনও ভদ্রলোকের খেলাকে রাঙিয়ে তুলেছেন সার্থকভাবে। অবসর গ্রহণের বছর চারেক পরও তাই শচীনকে নিয়ে আলোচনা থামবার নয়।

শচীন এবার কমিক বুকে

অবসরের পর কমেছিল ব্যস্ততা। সেই সময় আত্মজীবনীমূলক বই প্রকাশ করে ক্রিকেট-বিশ্বে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন শচীন টেন্ডুলকার। শচীনের জীবনের জানা-অজানা সকল গল্প উঠে এসেছিল ‘প্লেয়িং ইট মাই ওয়ে’ নামক বইটিতে।

Also Read - ভিলিয়ার্সই হারালেন বাংলাদেশকে

শচীনের অটোবায়োগ্রাফি অবলম্বনে এবার তৈরি করা হচ্ছে কমিক বুক। মূল বইটির প্রকাশনার কাজে যুক্ত আছে হ্যাসেথ ভারত। একই প্রকাশনা এবার বইটি তৈরি করছে শিশুদের জন্য কমিক আকারে। বইটির প্রকাশক জানিয়েছেন, কিংবদন্তী ও অনুপ্রেরণামূলক ব্যক্তিত্ব শচীনের জীবনের গল্প শিশুদের কাছে তুলে ধরতে সেই উপযোগী করে কমিকটি প্রকাশ করা হবে।

এ প্রসঙ্গে হ্যাসেথ ভারতের পক্ষে থমাস আব্রাহাম বলেন, ‘শচীন টিম বইটি নিয়ে কাজ করছে। তরুণ পাঠকদের জন্য এটি অনেক উত্তেজনাপূর্ণ একটি বই হবে।’

উঠতি সময়ে শচীনের কোচ ছিলেন রমাকান্ত আচরেকার। শচীন যাতে লম্বা সময় ধরে ব্যাটিং অনুশীলন করেন এজন্য স্ট্যাম্পের উপর তিনি কয়েন রাখতেন। নির্দিষ্ট সময় ব্যাট করতে পারলে তবেই কয়েকটি দেওয়া হতো শচীনকে। আর এভাবেই তিনি গড়ে তুলেছেন শচীন নামের এক রূপকথা। কমিক বইটিতে স্থান পাবে ঐ গল্প। এছাড়াও এতে থাকবে শচীনের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের উল্লেখযোগ্য সব দিক, থাকবে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের নানা রেকর্ড ও কীর্তির কথাও।

২০১৪ সালে শচীনের অটোবায়োগ্রাফি বা আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘প্লেয়িং ইট মাই ওয়ে’ প্রকাশিত হওয়ার পর পুরো বিশ্বে বেশ সমাদৃত ও প্রশংসিত হয়। ৪৪ বছর বয়সী এই ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব ব্যাটিংয়ের প্রায় সবগুলো রেকর্ডই নিজের দখলে রেখেছেন।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম