SCORE

Breaking News

সাকিব-তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামছে বাংলাদেশ

Share Button

একজন ব্যাট হাতে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন আরেকজন বল ও ব্যাট হাতে দলের হয়ে অপরিহার্য ভূমিকা পালন করেন। তবে দলের এই বড় দুই তারকাকে ছাড়াই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে মাঠে নামবে মুশফিক বাহিনীরা।

সাকিব-তামিমকে ছাড়াই মাঠে নামছে বাংলাদেশ

সাকিবকে ছাড়াও প্রথম টেস্টেও খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ দল। ছুটিতে থাকাতে খেলা হয়নি প্রোটিয়াদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ। তবে প্রথম টেস্টে খেলেছিলেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। ইনজুরির কারণে প্রথম ইনিংসে কিছুক্ষণ বিশ্রামে থাকার কারণে নামতে পারেননি পছন্দের ওপেনিং পজিশনে।

Also Read - মুশফিককে ডু প্লেসিসের খোঁচা!

ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ঝুঁকি নিতে নিষেধ করায় দ্বিতীয় টেস্টে পাচ্ছেনা দুর্দান্ত ফর্মে থাকা তামিম ইকবালকে। দীর্ঘ ৪ বছর পর তামিম-সাকিবকে ছাড়াই মাঠে নামছে বাংলাদেশ দল। শেষবার দলের দুই সেরা ক্রিকেটারকে ছাড়া মাঠে নেমেছিল ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে।

তবে সেবার তামিম-সাকিবকে ছাড়াও সেবার ভাল খেলেছিল দল। লঙ্কানদের বিপক্ষে ব্যাট ও বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্স করেছিল মুশফিক বাহিনীরা। তবে এবার প্রেক্ষাপট ভিন্ন। প্রথম টেস্টে ফ্ল্যাট উইকেটে খেলা হলেও দ্বিতীয় টেস্টে ভিন্ন উইকেটে খেলা হওয়ার সম্ভবনাই বেশি।

মূলত স্বাগতিকদের অধিনায়ক ডু প্লেসিসের চাওয়াতেই পেস বান্ধব উইকেটে খেলা হতে পারে দ্বিতীয় টেস্ট। তামিম-সাকিব বিহীন বাংলাদেশকে যে ভুগাবে সেটি একপ্রকার নিশ্চিতই বলা যায়। তবে টাইগারদের জন্য অনুপ্রেরণা হতে পারে নিউজিল্যান্ড সফর।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে বাউন্সি পিচে ব্যাট হাতে লড়াই করেছিল বাংলাদেশ। তবে সেবার সাকিব থাকলেও প্রোটিয়াদের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে থাকবেন না এই বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার। তবে সাকিবের পাশাপাশি শতক হাঁকিয়েছিলেন দলপতি মুশফিকুর রহিম।

সাকিব-তামিম বিহীন বাংলাদেশ দলকে তাকিয়ে থাকতে হবে অধিনায়ক মুশফিকের উপরেই। এইদিকে তামিমের অনুপস্থিতিতে একাদশে সুযোগ পাবেন আরেক ওপেনার সৌম্য সরকার। সেক্ষেত্রে নিজেকে প্রমাণ করার আরো একবার সুযোগ পেলেন অফ-ফর্মে থাকা ইমরুল কায়েস।

সাকিব-তামিম বিহীন বাংলাদেশ দলের সামনে যে কঠিন লড়াই অপেক্ষা করছে সেটি আর বলার অপেক্ষা রাখে না। অন্যদিকে ব্যাটসম্যান সাকিবের অভাব পূরণ করা গেলেও বোলার সাকিবের অভাব ঠিকই আরেকবার টের পাবে মুশফিক বাহিনীরা।

উল্লেখ্য, ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের হয়ে সাকিব একাই বল হাতে সফরকারীদের ব্যাটিংয়ে ধস নামান। তবে কন্ডিশন ভিন্ন হলেও সাকিবের অভিজ্ঞতা যে দলের জন্য কল্যাণ বয়ে আনতো সেটা সবার সামনেই স্পষ্ট। আর দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে প্রথম টেস্টে সাকিব না থাকায় ম্যাচের মধ্যে প্রভাব যে কতটা পড়েছে তা সকলেরই জানা।

Related Articles

লিটনকে তামিমের উপদেশ

জরিমানার পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞার মুখে তামিম-লিটন

মাইলফলক স্পর্শ করলেন কায়েস

রেকর্ড বইয়ে নাম লেখালেন বিজয়

দুটির বেশি বিদেশি লিগে খেলতে পারবেন না সাকিবরা