SCORE

Trending Now

স্বেচ্ছায় নেতৃত্ব ছাড়ছেন না মুশফিক!

Share Button

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে স্পষ্ট দৃশ্যমান ছিল মুশফিকুর রহিমের অপটু অধিনায়কত্ব। দুই ম্যাচেই মুশফিক টস জিতে নিয়েছেন ফিল্ডিং, যা ছিল দুই বড় হারের বড় কারণ। শুধু তা-ই নয়, ঢালাওভাবে টিম ম্যানেজমেন্টের নিন্দা করে মুশফিক জন্ম দিয়েছেন বিতর্কের।

এমন অবস্থায় শোনা যাচ্ছিল, এই টেস্ট সিরিজ শেষেই মুশফিকের অধিনায়কত্ব কেড়ে নিয়ে তা বর্তাবে অন্য কোনো সিনিয়র ক্রিকেটারের ঘাড়ে। ব্লুমফন্টেইন টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হারের পর অনেকেই ভেবেছিলেন, মুশফিক হয়ত অধিনায়কত্ব ছাড়ার কথা জানাবেন নিজ থেকেই।

Also Read - মুশফিককে সরিয়ে দেওয়াই কি সমাধান?

তবে মুশফিক জানিয়েছেন, নিজ থেকে অধিনায়কের দায়িত্ব ছাড়ছেন না তিনি। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন কথা জানান বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক।

তবে বোর্ড চাইলে সরে দাঁড়াবেন জানিয়ে মুশফিক বলেন, ‘আমাকে সরানো হবে কি না এই সিদ্ধান্তের ভার বোর্ডের ওপর। তারাই আমাকে এই সম্মান, দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার দায়িত্ব দিয়েছে। আমি সততার সঙ্গে আমার সেরা চেষ্টা করেছি। তারা যদি সন্তুষ্ট না হয় তাহলে সিদ্ধান্ত নিতে পারে।’

দলের পারফরমেন্সের ব্যাপারে এ সময় মুশফিকের কণ্ঠে ঝরে খানিকটা ক্ষোভ, ‘যা ঘটেছে আমি প্রথম দিনের খেলা শেষে কথা বলতে এসে কেবল তারই বর্ণনা দিয়েছি। যদি কেউ আমার মন্তব্যে খুশি না হয় তাদের অধিকার আছে আমার বা দলের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার।’

ব্যর্থতার দায় মাথায় পেতে নিয়ে মুশফিক বলেন, ‘আমি কেন সরে যাব? এটা তো ব্যক্তিগত কোনো খেলা না, দলীয় খেলা। অবশ্যই অধিনায়ক হিসেবে সব ব্যর্থতায় দায় আমার দিকেই আসবে। আমি সেটা নিচ্ছিও। দেশকে নেতৃত্ব দেওয়া আমার জন্য অনেক সম্মানের। আমি গর্বিত। এটা হবে বোর্ডের সিদ্ধান্ত। কারণ, তারাই আমাকে এনেছে।’

সাম্প্রতিককালের ভালো ক্রিকেটকে ভুলে গিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খুবই নাজুক ছিল বাংলাদেশের পারফরমেন্স। অধিনায়ক হিসেবে স্বভাবতই দোষ গিয়ে চাপছে মুশফিকের উপর। অধিনায়ককে নিয়ে জলঘোলা আর কতদূর যায়, সেটিই এখন দেখার বিষয়।

  • সিয়াম চৌধুরী, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম

Related Articles

জয়ে খুশি ডুমিনি

‘সবচেয়ে কঠিন এই সময়টা’

মাইলফলকের সামনে মাশরাফি

সাকিবকে ছাড়িয়ে গেলেন মাশরাফি