হার থেকে ইতিবাচক দিক খুঁজছেন মাশরাফি

0

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সফরের প্রথম টেস্টে বেশ শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রথমে বোলারদের ব্যর্থতায় স্বাগতিকদের রানের পাহাড় গড়া অতঃপর বোলারদের দাপুটে বোলিংয়ের সামনে সফরকারীদের অসহায় আত্মসমর্পণ হতাশা ছড়িয়েছে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার থেকে শুরু করে ভক্তদের মনে। তবে পরাজয় ছাপিয়ে এখান থেকে ইতিবাচক দিকে খুঁজে বের করতে নজর দিচ্ছেন মাশরাফি মুর্তজা। [ইংরেজিতে পড়ুন- হার থেকে ইতিবাচক দিক খুঁজছেন মাশরাফি]

পরাজয় থেকে ইতিবাচক দিক খুঁজছেন মাশরাফি

পচেফস্ট্রুম টেস্ট হারার পর চারদিকে যখন মুশফিকদের কড়া সমালোচনা চলছে। ঠিক তখন পরাজয়ের কালো দাগ মুছে এখান থেকে ইতিবাচক দিকগুলো বের করছেন মাশরাফি। মঙ্গলবার মিরপুরে অনুষ্ঠিত মোবাইল ফোন প্রতিষ্ঠানের এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের প্রথম টেস্ট নিয়ে।

Also Read - মাশরাফিকে পাশে পাচ্ছেন মুস্তাফিজ-তাসকিনরা

পচেফস্ট্রুম টেস্ট নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ইতিবাচক দিক তুলে ধরেন মাশরাফি। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘চারটা দিন যে ছেলেরা লড়াই করেছে, সেটা কিন্তু আমরা কেউ বলছি না। কিছু ভুল না করলে শেষ ইনিংসে (ব্যাটিং লাইনআপ) এমনভাবে ভেঙে পড়ত না। দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশন কেমন, সেটিও বুঝতে হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফরকে টেনে ভিন্ন কন্ডিশনে খেলাটা যে সব সময় কঠিন তা সবাইকে মনে করিয়ে দিয়ে নড়াইল এক্সপ্রেস আরো বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া দল বাংলাদেশে এসে তিন দিনে হেরে গেছে। শুধু যদি জয় আর হারটাই দেখি। তাঁদের (দলকে) কিসের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে, এটা যদি বুঝতে না পারি, তাহলে আমার মনে হয় ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা করা ঠিক নয়। এটা ঠিক, চতুর্থ ইনিংসে যেটা হয়েছে, কেউই আশা করিনি। এমন হওয়ার কথা নয়। কিন্তু হয়ে গেছে। ক্রিকেটে এমন দিন আসে। এমন ইনিংস কিন্তু ১০ বছর পরে দেখা গেল (১০০-এর নিচে বাংলাদেশ অলআউট)। যারা খেলেছে, তাদের যদি প্রশ্ন করেন, তারা আমাদের চেয়ে আরও বেশি হতাশ।’

প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের বাজেভাবে হারাতে জাত গেছে এমন ধ্বনি না তুলে বরং দলের খারাপ সময়ে দলের পাশে অবস্থান নেওয়ার জন্য এসময় ক্রিকেট ভক্তদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।