SCORE

Breaking News

“২০০ রান তাড়ার মানসিকতা তৈরি হয়নি”

Share Button

নির্ধারিত ২০ ওভারের খেলা শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার রান ছিল ২২৪।  দ্রুত উইকেট নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার ওপর চাপ সৃষ্টি করেছিল বাংলাদেশ। রানের গতিও ছিল নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু এরপর সব কিছু ওলটপালট করে দেয় প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলারের তাণ্ডব। বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও মনে করেন স্বাগতিকদের ১৭০-১৮০ রানে আটকে রাখার সুযোগ ছিল।  তাছাড়া এত বড় রান তাড়া করার মানসিকতা এখনো তৈরি হয়নি বলে মনে করছেন সাকিব।

"২০০ রান তাড়ার মানসিকতা তৈরি হয়নি"

প্রথম দিকে দক্ষিণ আফ্রিকার রান বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও সাকিব আল হাসান মনে করেন প্রথম দিকে রান হতে পারতো আরো কম। প্রথম দশ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার রান বাড়ার জন্য তিনি দায় দিয়েছেন ফিল্ডিংকে। সাকিব বলেন, “প্রথম দশ ওভারেও আমরা ৮-১০ রান বেশি দিয়েছি বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণে। দশ ওভারে ওদের ৩ উইকেটে ৬০-৭০ রান থাকার কথা ছিল। ওরা খুব ভালো ব্যাটিং করলেও সেখান থেকে ১৭০-১৮০ রানে থামানো যেত।”

৩৬ বলে ১০১ রানের এক বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন ডেভিড মিলার।  শেষ পাঁচ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকা রান তুলেছে ৯০। বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২২৫। টি-২০ ক্রিকেটে এর আগে কখনো এত বড় লক্ষ্য তাড়া করেনি বাংলাদেশ।  তার চেয়ে বড় কথা হলো, টি-২০ তে আগে কখনো এত রান দেয়নি টাইগাররা। বাংলাদেশের বিপক্ষে এটিই টি-২০ তে কোনো দলের দলীয় সর্বোচ্চ।

Also Read - জয়ে খুশি ডুমিনি

মিলারের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে রানের চাপায় পড়ে গিয়েছে বাংলাদেশ। সেখান থেকে উঠে দাঁড়ানোটা কঠিন ছিল বলে মনে করেন সাকিব।  এখনো দুইশ কিংবা আরো বড় লক্ষ্য তাড়া করার মানসিকতা গড়ে উঠেনি বলে মন্তব্য করেন সাকিব।   সাকিব বলেন, “আমরা এত বেশি রান দিয়ে ফেলেছি তখন খুবই কঠিন ছিল ঘুরে দাঁড়ানোর। ২০০-২২০ করলে সেটা তাড়া করব এই মানসিকতা আমাদের এখনো তৈরি হয়নি। আমরা ওইখানেই আছি যে ১৬০-১৭০ বা সর্বোচ্চ ১৮০ করলে হয়তো তাড়া করতে পারব।’”

আরো পড়ুনঃমাশরাফির অধীনে খেলা উপভোগ করবেন চার্লস

 

Related Articles

‘হাথুরুসিংহেকে ক্ষমতা দেওয়াই বুমেরাং হচ্ছে’

এমন পারফরম্যান্সেরর কারণ খুজঁছেন হাবিবুল

টি-২০ তে দ্রুততম শতকের মালিক হলেন মিলার

এবারও হোয়াইটওয়াশে চোখ প্রোটিয়াদের

ভুগিয়েছে প্রোটিয়াদের শেষ পাঁচ ওভারই