টানা তৃতীয় জয় সিলেট সিক্সার্সের

Share Button

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টির ৫ম আসরে টানা তৃতীয় জয় তুলে নিয়েছে বিপিএলের আন্ডারডগ দল সিলেট সিক্সার্স। এবারের আসরে হট ফেভারিট দলের তালিকায় না থাকলেও নাসির হোসেনের দারুণ বুদ্ধিমত্তার অধিনায়কত্ব এবং টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের দুর্দান্ত ফর্ম নিজেদের তৃতীয় জয় পেয়েছে সিলেট।

টানা তৃতীয় জয় সিলেট সিক্সার্সের

 

Also Read - বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচ জিতে সিরিজ জিতল ভারত

প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও টস জিতেছিলেন রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। তবে প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেও স্বাগতিকদের বিপক্ষে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন স্যামি। কিংস অধিনায়ককে ভুল প্রমাণ করে বরাবরই নিজেদের ফর্ম ধরে রেখেছে দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা এবং আন্দ্রে ফ্লেচার।

ইনিংসের শুরু থেকেই রাজশাহী বোলারদের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন থারাঙ্গা এবং ফ্লেচার। ওভার গড়ে ১০ রান নিয়ে প্রথম ১০ ওভারেই নিজেদের স্কোরবোর্ডে ১০০ রান পূর্ণ করে সিক্সার্স। এরই মধ্যে নিজের টানা তৃতীয় অর্ধশতক পূর্ণ করেন থারাঙ্গা। ব্যক্তিগত ৪৮ রান করে রান আউটের শিকার হন ফ্লেচার।

ফ্লেচারের বিদায়ের পর ৫০ করেই ফ্র্যাঙ্কলিনের বলে সাজঘরে ফিরেন থারাঙ্গা। বরাবরই ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ হন সাব্বির রহমান। তবে একপাশে ঝড়ো ইনিংস খেলেন দানুশকা গুনাতিলাকা। সাব্বিরের বিদায়ের পর ব্যাট হাতে ২২ বলে ৪২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

শেষদিকে ওয়াইটলির অপরাজিত ১২ বলে ২৫ রানের উপর ভর করে বিপিএলের ৫ম আসরে দ্বিতীয় দল হিসেবে ২০০ রান অতিক্রম করে সিলেট। রাজশাহী কিংসের হয়ে দুইটি উইকেট লাভ করেন কিসরিক উইলিয়ামস এবং একটি করে উইকেট পান ফরহাদ রেজা ও ফ্র্যাঙ্কলিন।

২০৬ রানের বিশাল টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ করে রাজশাহী। উদ্বোধনী জুটিতে ৫০ রান যোগ করে মুমিনুল হক ও লুক রাইট। ব্যক্তিগত ২৪ রান করে প্লাঙ্কেটের বলে আউট হন মুমিনুল। গত ম্যাচে রাজশাহীর হয়ে সর্বোচ্চ রান করা রনি তালুকদার সাজঘরে ফিরেন কোন রান না করেই।

ব্যাট হাতে আবারো ব্যর্থ হন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। মাত্র ১১ রান করে আবুল হাসানের করা ফুলটস বলে আউট হন তিনি। কোন রান যোগ না করেই একই ওভারে আউট হন সামিত প্যাটেল। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে সামাল দেন রাইট ও ফ্র্যাঙ্কলিন। দুই জনের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে জয়ের আশা জাগে কিংস সমর্থকদের মনে।

দু’জনের গড়া ৫৪ রানের জুটি ভাঙে দলীয় ১৩৩ রানে। ৫৬ রান করা রাইটকে ফিরিয়ে আবারো ম্যাচে ফিরে সিলেট সিক্সার্স। দলীয় ১২ রান যোগ করতেই ভুল বুঝাবুঝিতে আউট হন ৩৫ রান করা ফ্র্যাঙ্কলিন। তার বিদায়ে এক প্রকার পরাজয় নিশ্চিত হয় রাজশাহীর।

শেষ পর্যন্ত মিরাজের ৮, স্যামির ৯ এবং ফরহাদ রেজার অপরাজিত ১৫ রানে ১৭২ রানে ইনিংস থামে রাজশাহীর। ফলে ৩৩ রানের জয় পেয়ে টানা তৃতীয় জয় পায় সিলেট। সিক্সার্সের হয়ে ৩টি করে উইকেট পান আবুল হাসান এবং লিয়াম প্লাঙ্কেট ও একটি উইকেট লাভ করেন কামরুল রাব্বি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

সিলেট সিক্সার্স ২০৫-৬ (ওভার ২০)

থারাঙ্গা ৫০, ফ্লেচার ৪৮ঃ উইলিয়ামস ২-৩৯

রাজশাহী কিংস ১৭২-৮ (ওভার ২০)

রাইট ৫৬, ফ্র্যাঙ্কলিন ৩৫ঃ আবুল হাসান ৩-২২

ফলাফলঃ ৩৩ রানে জয়ী সিলেট সিক্সার্স।

আরো পড়ুনঃ বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচ জিতে সিরিজ জিতল ভারত