নেপথ্যে বিপিএল, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী খুন!

Share Button

বিপিএলের জের ধরে এবার খুন হয়েছেন এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী। সোমবার রাজধানীর বাড্ডায় ঘটে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা।

নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী এমাদ উদ্দিন নাসিম।
নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী এমাদ উদ্দিন নাসিম।

জানা গেছে, নিহত শিক্ষার্থীর নাম এমাদ উদ্দিন নাসিম। তার বয়স ২৩ বছর। তিনি মানারাত বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাবার নাম আলী আহমেদ সাইফুদ্দিন।

নিহতের বড় ভাই ফাহিম আহমেদ জানান, রোববার মধ্য রাতে বাড্ডার পোস্ট অফিস গলিতে অবস্থিত তাদের বাসার সামনে জুয়ার আসর বসায় আব্দুর রশিদ নামের এক ব্যক্তি। ঐ জুয়ার আসরে বিপিএলের ম্যাচ নিয়ে বাজি ধরা হচ্ছিল। অনৈতিক এই কাজে নাসিম বাঁধা দিলে রশিদের সাথে তার বিরোধ সৃষ্টি হয়।

Also Read - সেমিফাইনালের স্বপ্ন দেখছে যুবারা

তিনি আরও জানান, বিরোধের ব্যাপার জানতে পেরে ঘটনার মীমাংসা করার জন্য স্থানীয় লোকজন সোমবার বিকেলে সময় ধার্য করেন। কিন্তু সোমবার সকাল নয়টার দিকেই রশিদের ভাড়া করা সন্ত্রাসীরা নাসিমকে ছুরিকাঘাত করে। এতে নাসিম গুরুতর আহত হয়ে পড়লে সাথে সাথে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাতেও বাঁচানো যায়নি তাকে; সকাল সাড়ে দশটার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোকে বলেন, সকালে বাড্ডা এলাকায় নাসিমকে ছুরিকাঘাত করে দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আনা হয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নাসিমকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তাঁর পেটে আঘাতের চিহ্ন ছিল।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী। তিনি বলেন, বিপিএলের ম্যাচ নিয়ে বাজি ধরা হয়েছিল। এর কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে। জড়িত ব্যক্তিদের আটকের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

উল্লেখ্য, গত ৪ নভেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে দেশের ক্রিকেটের জনপ্রিয় আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ- বিপিএল। তবে টুর্নামেন্টের শুরুতেই এমন ঘটনা হতবাক করেছে সবাইকে।

আরও পড়ুনঃ বিতর্কের জন্ম দিয়ে জরিমানা গুনছেন সাব্বির