পাঁচ ডাক মেরে কপিলকে স্পর্শ করলেন কোহলি

বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ভিরাট কোহলি। ব্যাট হাতে রানের ফোয়ারা ছুটিয়ে এ ভারতীয় ডানহাতি ব্যাটসম্যান ভাঙছেন একের পর এক রেকর্ড। বোলারদের জন্য তার উইকেট যেন চরম আকাঙ্ক্ষিত। আর এ ভিরাট কোহলিই কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ডাক মেরে করেছেন এক তিক্ত রেকর্ড।

পাঁচ ডাক মেরে কপিলকে স্পর্শ করলেন কোহলি
ফাইল ছবি

ভারতের অধিনায়ক হিসেবে এক পঞ্জিকাবর্ষে সর্বোচ্চ ডাকের রেকর্ড ছিল কপিল দেবের। ১৯৮৩ সালে পাঁচটি ডাক মেরেছিলেন ভারতের এ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক। চলতি পঞ্জিকাবর্ষে পাঁচ ডাক মেরে কপিল দেবকে স্পর্শ করেছেন ভারতের বর্তমান অধিনায়ক ভিরাট কোহলি।

ডাকের সাথে ভিরাট কোহলির সম্পর্কটা এ বছর এসে যেন হুট করে বেড়ে গিয়েছে। ২০১৪ সালের আগস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টের পর দীর্ঘদিন শূন্য রানে সাজঘরে ফিরেননি কোহলি। এ বছর ফেব্রুয়ারিতে পুনে টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ডাক মেরেছিলেন তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইডেন গার্ডেন্সে এবার সুরাঙ্গা লাকমলের শিকার হয়ে ফিরলেন রানের খাতা খোলার আগেই।

Also Read - রাজশাহীর প্রতিপক্ষ সিলেট, খুলনার বিপক্ষে লড়বে চিটাগাং

২০১৪ সালের আগস্টে ভারতের ইংল্যান্ড সফরে ওয়ানডেতেও রানের খাতা খোলার আগেই ফিরেছিলেন কোহলি। টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও পরবর্তী দুই বছর শূন্য রানে আউট হননি কোহলি। কিন্তু এ বছর হয়েছেন দুইবার।

জুনে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫ বলে ০ রান করে আউট হয়েছিলেন কোহলি। সেপ্টেম্বরে চেন্নাইয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪ বলে ০ রান করেন তিনি।

২০১০ সালে আন্তর্জাতিক টি-২০ তে অভিষেক হওয়া কোহলি প্রথমবারের মতো ডাক মেরেছেন এ বছরেই। গোয়াহাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২ বলে ০ রান করে আউট হয়ে যান কোহলি।

১৯৭৬ সালে তৎকালীন অধিনায়ক বিষান সিং বেদী ডাক মেরেছিলেন চারবার। ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি এ অনাকাঙ্ক্ষিত কীর্তি গড়েছেন টানা দুই বছর। ২০০১ ও ২০০২ সালে চারটি করে ডাক মেরেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। আরেক সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ২০১১ সালে চারবার ডাক মেরেছিলেন।

[ভিডিও ক্লিপঃ মাঠে এ কেমন প্রশ্ন?]