SCORE

Trending Now

‘প্রপার বোলিংয়ের এখনও ৫০ ভাগ বাকি’

Share Button

দেশের সেরা পাঁচ বা দশ পেসারের তালিকা করলে সেখানে নিঃসন্দেহে থাকবে তাসকিন আহমেদের নাম। চলছে বিপিএলের পঞ্চম আসর, আর এই বিপিএল দিয়েই উত্থান ঘটেছিল তাসকিনের। দক্ষিণ আফ্রিকায় একটি খারাপ সফর কাটানোর পর দেশে ফিরেই বিয়ে… অপেক্ষা ছিল তাসকিনের আবার জ্বলে ওঠার। নিজেদের প্রথম ম্যাচে আহামরি ভালো করতে না পারলেও তাসকিন জ্বলে উঠলেন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই। সেই সাথে চিটাগং ভাইকিংসকে এনে দিলেন প্রথম জয়।

 

'প্রপার বোলিংয়ের এখনও ৫০ ভাগ বাকি'- তাসকিন
ম্যাচ সেরার পুরষ্কার হাতে তাসকিন। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

তাসকিন বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে চেষ্টা করেছি। যত খেলছি অভিজ্ঞতা হচ্ছে, আস্তে আস্তে শিখছি। আজকে যা চেষ্টা করেছি, সেই জিনিসগুলো আসলে ভুল থেকে শেখা।’

Also Read - পাঁচ বিদেশিতে সুযোগ হারাচ্ছেন মোসাদ্দেকরা

বোলিং স্কিলের অর্ধেকও এখনও অর্জন করতে পারেননি বলে মনে করছেন তাসকিন। এও জানালেন, উন্নতির জন্য সাহায্য নেন মাশরাফি বিন মুর্তজা-রুবেল হোসেনদের।

তাসকিন বলেন, ‘এখন আমি যদি বলি অনেক শিখে গেছি সেটা কিন্তু নয়। ‘প্রপার’ বোলিংয়ের আমি এখনো ৫০ ভাগ অর্জন করতে পেরেছি, আরও ৫০ ভাগ বাকি আছে। সেটার জন্য কাজ করছি। সিনিয়ররা, মাশরাফি ভাই, রুবেল ভাই সবার সাথে কথা বলি। বাকিরাও সাহায্য করেন আমাকে।

তিন উইকেট শিকার করা তাসকিন সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের উইকেটকে আখ্যা দিচ্ছেন ‘ব্যাটিং ট্র্যাক’ হিসেবে- ‘খুব ভালো একটা ব্যাটিং ট্র্যাক ছিল। চেষ্টা করেছি যত মিক্স আপ করা যায়, স্লোয়ার, বাউন্সার ইয়র্কার যত বেশি করা যায়। একই লেন্থের দুটি থেকে তিনটি বল করলেই কিন্তু বাউন্ডারি। এজন্য এর আগের দুইটা বল শর্ট অব লেন্থে বাউন্সার মেরেছি। ওই বলে প্ল্যান করেছি ইয়র্কার করার জন্য, সেটা নিঁখুত হয়েছে।’

ম্যাচে চোখ ধাঁধানো ব্যাপার ছিল রবি বোপারাকে পায়ের স্পর্শে রানআউট করা। এজন্য তাসকিন কৃতিত্ব দিচ্ছেন ফুটবল অনুশীলনকে।

২২ বছর বয়সী পেসার বলেন, ‘ভাগ্য ভালো ছিল। বোপারার রান আউটটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। জাতীয় দলের অনুশীলনে আমরা প্রচুর ফুটবল খেলি। আমরা আসলে ফুটবলে অভ্যস্ত হয়ে গেছি। আর এটাই রান আউটে সাহায্য করেছে।’

আরও পড়ুনঃ সিলেট স্টেডিয়াম নিয়ে স্থপতির আক্ষেপ

Related Articles

বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করল ঢাকা-চট্টগ্রামও