SCORE

Trending Now

‘ফকির হলে নিজের বুদ্ধিতে ফকির হও…’

Share Button

‘ফকির হলে নিজের বুদ্ধিতে ফকির হও’- চিটাগং ভাইকিংসের দ্বিতীয় ম্যাচের দিন সকালে নাশতার টেবিলে তাসকিনকে এই কথাই বলেছিলেন দলের অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক। ফর্মহীনতায় সমালোচনা তো আর কম হজম করছেন না। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও ভালো কিছু করতে পারেননি। বিপিএলের আগমুহূর্তে বসেছেন বিয়ের পিঁড়িতে। নববধূকে ফেলে এসেই ২২ গজে নামতে হয়েছে পেশাদারিত্বের টানে। সব সমালোচনা পেছনে ফেলে ছিল ভালো করার তাড়না।

'ফকির হলে নিজের বুদ্ধিতে ফকির হও...'
ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

তাসকিন অবশেষে ভালো করেছেন। তার অসাধারণ নৈপুণ্যেই আসরের সবচেয়ে কম শক্তিশালী দলটি পেয়েছে নিজেদের প্রথম জয়। ম্যাচ শেষে কালের কণ্ঠকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তাসকিন জানান বিপিএলের জন্য মানসিকভাবে মানিয়ে নেওয়ার উপায়।

তাসকিন বলেন, ‘(দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের পর) ফরম্যাট আলাদা, মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপার তো আছেই। যারা বল করছে তাদের বল দেখেও বোঝার চেষ্টা করছি কিভাবে তারা সফল হচ্ছে।  সকালে মিসবাহ ভাই নাশতার টেবিলে একটা কথা বলেছেন, ফকির হলে নিজের বুদ্ধিতে ফকির হও। মরলে নিজের বুদ্ধিতে বল করে মার খাও। মানুষের কথা শোনার চেয়ে আমি আমার মনের কথা শোনার চেষ্টা করেছি।’

Also Read - সামর্থ্যের প্রমাণ রাখতে পেরে খুশি মাহমুদউল্লাহ

ম্যাচজয়ী পারফরমেন্সের জন্য আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তাসকিন বলেন, ‘আসলে আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে ছয়টা ম্যাচ মনের মতো একদমই হয়নি, ফার্স্ট ক্লাসটাও খেলতে পারি নাই। মনের মধ্যে আশা ছিল ভালো করার। সত্যি বলতে, প্রথম ম্যাচে খুব মনমরা ছিলাম। তবে ম্যাচের আগের রাতে ও আজ (কাল) সকালে বুঝতে পেরেছি আগের ভালোগুলা যে করেছি, সেটা তো আমিই করেছি। আশা ছাড়িনি, অনুশীলনে বল করেছি। মন খুলে বল করায় ভালো একটা কামব্যাক হয়েছে।’

অল্পের জন্য হ্যাট্রিকের সুযোগ মিস করলেও পায়ের কারিশমায় রান আউটের ফাঁদে ফেলেছিলেন রবি বোপারাকে, তাতে তিন বলে তিন উইকেটের পতন ঘটেছিল ঠিকই। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সবাই উত্তেজনায় এসে এসে বলে। সবাই ভালো চায়। এনামুল হক আমার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক ছিল, তখন থেকে ওর সঙ্গে আমার ভালো বোঝাপড়া। সৌম্য আছে, মিসবাহ ভাই আছে। সবাই ইয়র্কারের কথাই বলেছে। আমি ওটাই চেষ্টা করেছি। আর রান আউটটা নিয়ে কী বলব, জাতীয় দলের গা গরমে ফুটবল নিয়ে ‘চোর চোর’ খেলি, ওটারই ছোটখাটো একটা স্কিল দেখিয়েছি!’

তারকা পেসার এ সময় জানান, হ্যাট্রিক না পাওয়ায় কোনো আফসোস নেই তার- ‘একদমই আফসোস নেই। ম্যাচ জিততে পেরেছি, সেটাই বড় কথা। আমি সব সময় প্রার্থনা করি, ম্যাচ জেতার পেছনে যেন অবদান থাকে। আমার মনে হয়, আমার তিন উইকেট কিছুটা অবদান রাখতে পেরেছে।’

আরও পড়ুনঃ তরুণ ক্রিকেটারদের সুযোগ দিতে চায় রংপুর

Related Articles

মাইলফলক স্পর্শ করলেন কায়েস

রেকর্ড বইয়ে নাম লেখালেন বিজয়

পিএসএলে ডাক পেলেন সাকিব, তামিম, রিয়াদ ও মুস্তাফিজ

ভাইকিংসের উদীয়মানদের দিকে তাকিয়ে বিজয়

শান্তদের কাছে পাত্তাই পেল না আইরিশরা