SCORE

Trending Now

ফের প্রশ্নবিদ্ধ আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন

Share Button

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চলতি আসরে আল-আমিন হোসেনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে রিপোর্ট করা হয়েছে। গত ২৮ নভেম্বর খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের এই পেসারের অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়।

 

Also Read - ব্রিসবেন হিট স্কোয়াডে যোগ দিলেন রুমানা

এর আগে ২০১৪ সালে জাতীয় দলের খেলার সময় আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি ধরা পড়েছিল। এরপর দুই দফা পরীক্ষা দিয়ে বৈধতা পান আল আমিন। তিন বছর পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ৫ম আসরে এসে আবার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ হলেন আল-আমিন। খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ইনিংসের ১৫তম ওভারে আল-আমিনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে রিপোর্ট করেন মাঠের আম্পায়ার। সেই ওভারে খুলনার ব্যাটসম্যান আরিফুল হককে আউট করেছিলেন আল-আমিন। সেই ম্যাচে ৪ ওভার বোলিং করে ২০ রানে তিন উইকেট নেন এই পেসার। পাশাপাশি কুমিল্লা জিতে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

এদিকে আল-আমিনের অ্যাকশন নিয়ে রিপোর্ট করা হলেও আপাতত বোলিং করতে বাধা নেই এই পেসারের। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী আরও দুই সপ্তাহ ২৯ নভেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত বল করার সুযোগ পাবেন আল-আমিন। এই প্রসঙ্গে বোলিং অ্যাকশন পর্যবেক্ষণ কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, “খুলনা টাইটানসের (২৮ নভেম্বর) বিপক্ষে বোলিং অ্যাকশন নিয়ে আল-আমিনের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করা হয়েছে। তবে আগামী ১৪ দিন তার বোলিং করতে কোনও সমস্যা নেই। ১৪ দিনের মধ্যে তাকে রিপোর্ট করতে হবে। এরপর তার বোলিং অ্যাকশন দেখা হবে। তখন কোনও সমস্যা পাওয়া গেলে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হবে। তারপর তার অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।”

অন্যদিকে এবারের আসরের ৯ ম্যাচে ৭ উইকেট নেয়া আল-আমিন জানিয়েছেন,  “আম্পায়ারদের যে কোনও ওভার নিয়েই সন্দেহ হতে পারে। তাই বলে আমার অ্যাকশন অবৈধ হয়ে যাচ্ছে, এমনটা আমি মনে করছি না। আমার দুই সপ্তাহ সময় আছে। এরপর রিভিউ কমিটির তত্ত্বাবধানে কাজ করব।”

[আরো পড়ুনঃ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে ৫২ কোটি রুপি জরিমানা]

Related Articles

বিপিএলেই মনোযোগ আল-আমিনের

এক ম্যাচে নাসিরের দুই মাইলফলক স্পর্শ

সামির ওভারকেই কৃতিত্ব দিচ্ছেন আল-আমিন

অভিনব অর্জনে রেকর্ড বইয়ে সাকিব

বিপিএলে নতুন কীর্তি হাসান আলীর